• সংবাদ সংস্থা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

কেলেঙ্কারির একশেষ! জয়া, করুণার হয়ে ভোটের প্রচারে একই মুখ

election advertisement

ভোটে জিততে প্রচারের জন্য টিম গড়ে সব দলই। গড়েছেন জয়ললিতা, করুণানিধিও। কিন্তু তামিলনাড়ুর দুই প্রধান প্রতিপক্ষের দুই ভোট্টিমাটিম টিম যে প্রচারের মাঠে এমন ডিম পেড়ে বসবে কে জানত!

পাঁচ মিনিট আগে টিভিতে এক বৃদ্ধাকে জয়ললিতার প্রশংসায় পঞ্চমুখ হতে দেখল তামাম তামিলনাড়ু। খানিক পরে সেই তিনিই আর এক দলের হয়ে জয়ললিতার বিরুদ্ধে সরব! এ কী এ কী, গেল গেল রব ওঠার মধ্যেই কেলেঙ্কারি যা হওয়ার হয়ে গিয়েছে।

প্রথমে জয়ললিতার হয়ে প্রচারে তিনি একটি বিজ্ঞাপনে অভিনয় করেন। সেখানে দেখা যায়, তিনি জয়ললিতার ‘আম্মা অন্নধনম’ নামে প্রকল্পের প্রভূত প্রশংসা করছেন। বলছেন, আমার ছেলে আমাকে খেতে দেয় না কিন্তু আম্মা আমাদের মতো দুঃস্থদের জন্য প্রতি মন্দিরে ফ্রি-তে খাবার ব্যবস্থা করে দিয়েছেন। ঠিক এর পাঁচ মিনিটের মধ্যেই বিরোধী দল ডিএমকে-র জন্যও তিনি  গরীবদের মুখ হয়ে একই ভাবে একটি বিজ্ঞাপনী প্রচারে অভিনয় করতে দেখা যায়। সেখানে আবার গরীব-দুঃস্থদের না দেখে জয়ললিতার কপ্টারে করে ঘুরে বেড়ানো নিয়ে তীব্র নিন্দা করতেও ছাড়েননি তিনি। তিনি ৬৭ বছরের কস্তুরী পাতি। অতটা জনপ্রিয় না হলেও তামিলনাড়ুর টিভি সিরিয়ালে তাঁকে টুকটাক অভিনয় করতে দেখা যায়।

দেখে শুনে আম আদমি তো হেসেই অস্থির! কস্তুরীদেবীর অবশ্য বক্তব্য, তিনি বুঝতে পারেননি তাঁকে দিয়ে বিজ্ঞাপণী প্রচারে অভিনয় করানো হচ্ছে। তিনি বলেন, ‘‘আমি ভেবেছিলাম আমাকে দিয়ে এমনিই কোনও অভিনয় করানো হচ্ছে। তা যে আসলে ভোটের প্রচারের জন্য তা বুঝিনি।’’ কেলেঙ্কারি বেরিয়ে পড়ার পর দুই দলই দায় ঠেলছে যার যার প্রচার এজেন্টের দিকে। জানা গিয়েছে, দুই দলেরই এজেন্ট অফার নিয়ে ওই প্রবীণ অভিনেত্রীর কাছে গিয়েছিলেন। আগেপিছে না ভেবে দু’টি অফারই গ্রহণ করে নেন তিনি। তার পর যা হওয়ার তাই হয়েছে।

আরও পড়ুন: কাশ্মীর, অরুণাচল আর বিতর্কিত নয়, ভারতেরই অংশ, বলছে গুগল ম্যাপ

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন