• সংবাদ সংস্থা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

করোনা থেকে সুস্থ হওয়া রোগীরা কী করবেন, কী করবেন না, পরামর্শ দিল কেন্দ্র

Corona
সেরে ওঠা করোনা রোগীদের একগুচ্ছ পরামর্শ কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রকের।

দৈনিক যোগব্যায়াম করুন। সকাল বা সন্ধ্যায় হাঁটুন। গরম জল বা দুধের সঙ্গে এক চামচ চ্যবনপ্রাশ খান। করোনা থেকে সেরে ওঠা রোগীদের সুস্থ থাকতে এমনই পরামর্শ দিল কেন্দ্রীয় সরকার। রবিবার করোনা পরবর্তী বিধি জারি করেছে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রক। তাতে এমনই নানা পরামর্শের উল্লেখ করা হয়েছে।

গত কয়েক দিন ধরেই লাখের কাছাকাছি ভারতের দৈনিক করোনা সংক্রমণের হার। রোজই বাড়ছে সেই সংখ্যাটা। এই পরিস্থিতিতে সুস্থ হয়ে ওঠা রোগীরা কী করবেন বা কী করবেন না— তা নিয়ে একগুচ্ছ পরামর্শ দিয়েছে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রক। স্বাস্থ্য মন্ত্রক বলছে, করোনা থেকে সুস্থ হয়ে উঠলেও অনেকেই শরীরে ব্যথা-যন্ত্রণা, ক্লান্তি, শ্লেষ্মা, গলায় জ্বালা এবং শ্বাসকষ্ট অনুভব করছেন বলে জানাচ্ছেন। সে ক্ষেত্রে অনেকরই পুরোপুরি সুস্থ হয়ে উঠতে লম্বা সময় লাগছে। বিশেষ করে যাঁদের শরীরে আগে থেকেই কো-মর্বিডিটি রয়েছে। তাঁদের জন্যই এই গাইডলাইন।

কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রকের পরামর্শ

• মাস্ক ব্যবহার করতে বলা হয়েছে। এর পাশাপাশি হাত এবং শ্বাসযন্ত্রের ক্ষেত্রে অন্যান্য স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার কথাও বলা হয়েছে।

• উপযুক্ত পরিমাণ গরম জল পানের পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

• রোগ প্রতিরোধ বাড়ানোর জন্য ‘আয়ুষ’-এর ওষুধ ব্যবহার করার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

• শরীরে কুলোলে নিয়মিত বাড়ির কাজকর্ম করা যেতে পারে।

• যোগাসন, প্রাণায়াম এবং ধ্যানের মতো  ব্যায়াম এবং সকাল-সন্ধ্যা হাঁটা যেতে পারে।

• পুষ্টিকর খাবার খাওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

• উপযুক্ত বিশ্রাম এবং ঘুম।

• ধূমপান এবং মদ্যপান ছেড়ে দেওয়া।

• শরীরের তাপমাত্রা, রক্তচাপ, পালস এবং সুগার নিয়মিত পরীক্ষা করা।

• জ্বর, শ্বাসকষ্ট, বুকের ব্যথা, দুর্বলতা ইত্যাদি উপসর্গ সম্পর্কে সতর্ক থাকতে বলা হয়েছে।

আরও পড়ুন: সাড়ে ৪৭ লক্ষ ছাড়াল আক্রান্ত, ২৪ ঘণ্টায় সুস্থতার হার সবচেয়ে বেশি
এ ছাড়াও আরও কিছু পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

•  করোনা থেকে সুস্থ হয়ে ওঠা ব্যক্তিদের রোগের সঙ্গে লড়াইয়ের ইতিবাচক অভিজ্ঞতা আত্মীয় এবং বন্ধুদের জানানোর জন্যও বলছে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রক।

• সুস্থ হওয়ার জন্য বিভিন্ন ক্ষেত্রে স্বনির্ভর গোষ্ঠী, বিভিন্ন সংস্থা এবং পেশাদারদের সাহায্য নেওয়ার কথাও বলা হয়েছে।

• সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে দলবদ্ধ ভাবে যোগব্যায়াম বা ধ্যান করার পরামর্শও দিয়েছে স্বাস্থ্যমন্ত্রক।

আরও পড়ুন: অক্সফোর্ডের টিকা কি হার মানবে লেকটাউনের সুমির উদ্ভাবনের কাছে?

• ছাড়া পাওয়ার ৭ দিন পর হাসপাতালে গিয়ে প্রথম বার চেক আপ করানো উচিত

• অ্যালোপ্যাথি, আয়ুষ বা অন্যান্য ওষুধের দ্বারা প্রয়োজনীয় চিকিৎসা করানো যেতে পারে।

• হোম আইসোলেশনে থাকা রোগীদের উপসর্গ যদি থেকে যায় সে ক্ষেত্রে কাছাকাছি স্বাস্থ্যকেন্দ্র বা হাসপাতালের সঙ্গে যোগাযোগ করতে বলা হয়েছে।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন