• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

জয় এড়িয়ে উন্নয়ন-কথা অমিতের

Amit Shah
অমিত শাহ।

মুখ খুললেন। কিন্তু ছেলের বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগ নিয়ে টুঁ শব্দটি করলেন না অমিত শাহ। বরং অমেঠীতে দাঁড়িয়ে সারা ক্ষণ তোপ দেগে গেলেন রাহুল গাঁধীকে, যিনি এখন মোদী-শাহেরই দুর্গ গুজরাতে গিয়ে প্রশ্ন তুলছেন নিরন্তর।

ভোটের আগের এই গুজরাত সফরে সকাল-সন্ধে সমাজের বিভিন্ন ক্ষেত্রের মানুষের সঙ্গে খোলাখুলি আলাপচারিতা করছেন রাহুল। প্রশ্ন নিচ্ছেন, জবাবও দিচ্ছেন। অনেকেরই মতে, গত তিন বছরে এই কাজটিই করতে দেখা যায়নি নরেন্দ্র মোদীকে। এবং এরই ফাঁকে রাহুল বারবার প্রশ্ন তুলছেন— কী করে ‘শাহজাদা’ (অমিত শাহের পুত্র জয়) ৪ মাসে ৫০ হাজার টাকাকে ৮০ কোটি টাকা করলেন? আর ‘চৌকিদার’ (মোদী) চুপ কেন? রাহুল আজ বলেন, ‘‘এত দিন স্লোগান ছিল ‘বেটি বচাও’। এখন পীযূষ গয়াল নেমেছেন ‘বেটা-বচাও’ অভিযানে।’’ শুধু তিনি নিজে নন, শহরে-শহরে দলের নেতাদেরও এ নিয়ে আক্রমণে নামিয়ে দিয়েছেন রাহুল।

কংগ্রেস সহ-সভাপতির এই আক্রমণাত্মক মনোভাবই মোদী-শাহের অস্বস্তি। গোটা বিতর্ক সামনে আসার পরে আজ রাহুলের নির্বাচনী কেন্দ্র অমেঠীতে তো গিয়েছেন অমিত। রাহুল যে ভাবে ‘শাহজাদা’ বলে জয়কে আক্রমণ করেছেন, সেই ভাষাতেই তাঁকে জবাব দিয়েছেন। কিন্তু ছেলের প্রসঙ্গ সম্পূর্ণ এড়িয়ে সরব হয়েছেন উন্নয়ন নিয়ে।

আরও পড়ুন:লিঙ্গ বদলে নৌসেনার চাকরি খুইয়ে কোর্টে যাচ্ছেন সাবি

উন্নয়নের ‘গুজরাত মডেল’ নিয়ে দেশে-বিদেশে প্রচার করছে বিজেপি। রাহুল তাকেই খারিজ করেছেন। সেই সঙ্গে গুজরাতে গিয়ে আম নাগরিকের মুখ থেকে তাঁদের অপ্রাপ্তির কথা শুনেছেন। এই পরিপ্রেক্ষিতে অমিতকে আজ বলতে হয়েছে, ‘‘কংগ্রেসের শাহজাদার পরিবার তিন প্রজন্ম ধরে দেশ চালিয়েছে। আর তিনি আজ নরেন্দ্র মোদীর তিন বছরের হিসেব চাইছেন? গুজরাতের সব গ্রামে বিদ্যুৎ, জল, তহসিলে স্বাস্থ্যকেন্দ্র আছে। অমেঠী এত বছর ধরে গাঁধী পরিবারকে ভোট দিলেও সেখানে কীসের উন্নয়ন হয়েছে? দেশে দু’ধরনের উন্নয়নের মডেল আছে— একটি ‘নেহরু-গাঁধী’ মডেল, আর একটি ‘মোদী-মডেল। আর এখনকার প্রধানমন্ত্রী মুখচোরা নন।’’

কংগ্রেসের বক্তব্য, উন্নয়ন নিয়ে রাহুলকে আক্রমণ করে ছেলেকে ঘিরে বিতর্কের মোড় ঘোরাতে চাইছেন অমিত। ফলে হরেদরে রাহুলকে গুরুত্বই দিতে হচ্ছে তাঁকে। আজ অবশ্য জয়কে আড়াল করার জন্য বিজেপির কোনও নেতা এগিয়ে আসেননি। সকালে দিল্লিতে এনআইএ ভবন উদ্বোধনের সময়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিংহকে জিজ্ঞাসা করা হয়, জয় শাহের বিরুদ্ধে অভিযোগের কি কোনও তদন্ত হবে? রাজনাথ জবাব দেন, ‘‘ভিত্তিহীন অভিযোগে নতুন কোনও তথ্য নেই, যে তার তদন্ত করাতে হবে।’’

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন