আচমকা কড়া হওয়ার পর সমালোচনার তোপের মুখে সুর নরম করেছিলেন কেন্দ্রীয় তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী স্মৃতি ইরানি। কিন্তু একটা দিন কাটতে না কাটতেই ফের অনলাইন মিডিয়া ও নিউজ পোর্টালগুলির বিরুদ্ধে কোমর বেঁধে নেমে পড়ার প্রস্তুতি শুরু করে দিল কেন্দ্রীয় তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রক।

অনলাইন মিডিয়া ও নিউজ পোর্টালগুলির উপর নজরদারির জন্য বুধবার উচ্চক্ষমতাসম্পন্ন একটি নিয়ন্ত্রক কমিটি গড়ে দিলেন স্মৃতি। যার মাথায় রাখা হল কেন্দ্রীয় তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রকের সচিবকে।

‘ভুয়ো খবর’ রুখতে কী ভাবে অনলাইন মিডিয়া ও নিউজ পোর্টালগুলিকে নীতি-নিয়মের বেড়ি-বাঁধনে বেঁধে ফেলা যায়, তা নিয়ে আলোচনার পর কেন্দ্রীয় তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রীর কাছে এ ব্যাপারে তাদের সুপারিশ জানাবে ওই কমিটি।

কেন্দ্রীয় তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রকের সচিবকে মাথায় রেখে গড়া ওই নিয়ন্ত্রক কমিটির সদস্য সংখ্যা ১০। যার সদস্যদের মধ্যে রয়েছেন আরও ৪টি কেন্দ্রীয় মন্ত্রকের সচিবরা। স্বরাষ্ট্র, ইলেকট্রনিক্স ও ইনফরমেশন টেকনোলজি, আইন এবং শিল্প নীতি ও বাস্তবায়ন মন্ত্রকের সচিবরা ছাড়াও ওই কমিটিতে রয়েছেন প্রেস কাউন্সিল অফ ইন্ডিয়া, নিউজ ব্রডকাস্টার অ্যাসোসিয়েশন ও ইন্ডিয়ান ব্রডকাস্টার ফেডারেশনের প্রতিনিধিরা।

আরও পড়ুন- সাংবাদিক-ঘর সরিয়ে ‘ক্রেশ’​

আরও পড়ুন- সক্রিয় খোদ মোদী, ভুয়ো খবর নিয়ে স্মৃতির নির্দেশ বাতিল​

সরকারি সূত্র জানাচ্ছে, খবর সম্প্রচারের ক্ষেত্রে সংবাদপত্র ও টেলিভিশন চ্যানেলগুলিকে যে সব সরকারি নিয়মনীতি বাধ্যতামূলক ভাবে মেনে চলতে হয়, অনলাইন মিডিয়া ও নিউজ পোর্টালগুলির ক্ষেত্রেও তেমন নিয়মনীতি চালু করা যায় কি না আর সেগুলি কী কী হতে পারে, কেন্দ্রীয় তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রীর গড়ে দেওয়া ওই নিয়ন্ত্রক কমিটিই তা চূড়ান্ত করবে।

আর তা করার জন্য অন্যান্য দেশে এ ব্যাপারে কী কী নিয়মকানুন চালু রয়েছে, তার মধ্যে কোনটি বেশি গ্রহণযোগ্য, সদ্যগঠিত কমিটি তাও খতিয়ে দেখবে।