• দেবমাল্য বাগচী
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

পড়শি দেশের পড়ুয়াদের পাশে আইআইটি 

iit

সার্ক গোষ্ঠীভুক্ত পাঁচটি দেশের পড়ুয়ারা এক বছর বিনা খরচে পড়তে পারবেন খড়্গপুর আইআইটিতে। তালিকা থেকে আপাতত বাদ থাকছে পাকিস্তান ও আফগানিস্তান।

দেশে জঙ্গি হামলার পর পাকিস্তানের সঙ্গে সম্পর্কে তৈরি হয়েছে টানাপড়েন। সেই জন্যই কি এই সিদ্ধান্ত? বিষয়টি স্পষ্ট করেননি কর্তৃপক্ষ। গোটা বিষয়টি দেখভালের দায়িত্বে রয়েছে খড়্গপুর আইআইটির আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগ। ওই বিভাগের ডিন বৈদুর্য ভট্টাচার্য শুধু বলছেন, “আপাতত আমরা সার্কের অধীনে থাকা পাঁচটি দেশকে নিয়ে এই কর্মসূচি চালু করছি। পড়শি দেশগুলিতে ভাল পড়ুয়া রয়েছে। তারা কীভাবে লক্ষ্য অতিক্রম করে, নতুন বিষয় শিখতে কী সমাধান সূত্র প্রয়োগ করে— এসব আমরা জানতে চাইছি। আমাদের কাছে যেগুলি সেরা সেগুলি ওদের জানাব।’’ কিন্তু পড়শি দেশগুলির তালিকা থেকে ওই দু’টি দেশ বাদ কেন তা নিয়ে মন্তব্য করতে চাননি ডিন। প্রকাশ্যে কেউ কিছু না বললেও আইআইটি সূত্রের খবর, বৈদেশিক নীতির কথা মাথায় রেখে যাবতীয় সিদ্ধান্ত নেওয়া হচ্ছে।

চলতি বছর থেকেই শুরু হবে এই নয়া ব্যবস্থা। আপাতত ঠিক হয়েছে, পড়ুয়ারা একেবারে বিনা খরচে স্নাতক, স্নাতকোত্তর স্তরে পড়াশোনার সুযোগ পাবেন। থাকবে গবেষণার সুযোগও। তবে সবই এক বছরের জন্য। আইআইটিতে পড়ানো হয় এমন বিষয়ে পড়াশোনা করা যাবে। প্রথম পর্যায়ে সুযোগ পাবেন ১০জন পড়ুয়া। বাছাই হওয়া পড়ুয়াদের বিমানের খরচ, টিউশন ফি, থাকার খরচ, স্থানীয় যাতায়াত, স্বাস্থ্যবিমা-সহ যাবতীয় খরচ বহন করবে আইআইটি। এই খরচ জোগাবেন আইআইটির কয়েকজন প্রাক্তনী।  আবেদনকারীকে সেই দেশের কোনও প্রতিষ্ঠানের পূর্ণ সময়ের পড়ুয়া হতে হবে। 

কোনও পড়ুয়া চাইলে এই এক বছরের পড়াশোনার অভিজ্ঞতা নিজের দেশের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে স্থানান্তরিত করতে পারবেন। সে ক্ষেত্রে নিজের প্রতিষ্ঠানে এক বছর কম পড়তে হবে তাঁকে। আগামী দিনে প্রাক্তনীদের সহযোগিতা মিললে পড়ুয়ার সংখ্যা বাড়ানো হবে বলে জানিয়েছে আইআইটি কর্তৃপক্ষ।         

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন