• সংবাদ সংস্থা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

মাঝপথে থামানোয় অপমানিত নৃত্যশিল্পী

kawali
মঞ্জরী চতুর্বেদী। ফাইল চিত্র।

কাওয়ালির সঙ্গে তাঁর নৃত্য পরিবেশনা থামিয়ে দেওয়া হয়েছিল মাঝপথে। গত কাল নিজের শহর লখনউয়ে এই ঘটনা ঘটায় তিনি চূড়ান্ত অপমানিত বোধ করেছেন বলে জানালেন নৃত্যশিল্পী মঞ্জরী চতুর্বেদী। যোগী আদিত্যনাথের রাজ্যে সরকারি এক অনুষ্ঠানে এই ঘটনা ঘটায় ইতিমধ্যেই বিষয়টিতে সাম্প্রদায়িকতার রং লেগেছে।

যদিও গোটা ঘটনায় কোনও রাজনৈতিক বা সাম্প্রদায়িক রং লাগাতে চান না মঞ্জরী। সংবাদমাধ্যমকে এক সাক্ষাৎকারে আজ তিনি জানিয়েছেন, তিনি এক জন শিল্পী। সকলের মধ্যে ভালবাসা আর শান্তি বিরাজ করুক, এটাই তিনি চান।

কাল কাওয়ালি নৃত্যের মাঝপথে মঞ্জরীকে যখন থামানো হয়, রাজ্যের সংস্কৃতি বিভাগের আধিকারিকেরা জানিয়েছিলেন, অতিরিক্ত সময় নেওয়ায় তাঁর অনুষ্ঠান বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। আজ সেই অভিযোগ খারিজ করেছেন মঞ্জরী। জানিয়েছেন, ঠিক ওই গানটির জন্য তাঁর ন’মিনিট সময় লাগার কথা ছিল। আট মিনিট প্রায় নেচেওছিলেন তিনি। কিন্তু নাচ শেষ হওয়ার আগেই গানটি বন্ধ করে দেওয়া হয়। মঞ্জরীর আরও দাবি, তিনি যে কাওয়ালি গানের সঙ্গে নাচবেন, সেটা উদ্যোক্তারা
আগে থেকেই জানতেন। তার পরেও তাঁকে এই বিশেষ নাচটি কেন শেষ করতে দেওয়া হল না, তা নিয়ে আজ প্রশ্ন তুলেছেন শিল্পী। ঘটনার পরে রাজ্য সরকারের কিছু শীর্ষস্থানীয় কর্তা তাঁকে ফোন করেছিলেন বলে জানিয়েছেন মঞ্জরী। কিন্তু তাঁর কথায়, ‘‘৩৫টিরও বেশি দেশে অনুষ্ঠান করেছি। কিন্তু আমার নিজের দেশের নিজের শহর লখনউয়ে যে কোনও দিন এ ভাবে অপমানিত হতে হবে, তা ভাবতে পারিনি।’

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন