‘কর্মফলের জন্য প্রস্তুত হোন’, মোদীকে পাল্টা তোপ রাহুলের
রাহুলকে লক্ষ্য করে শনিবার উত্তরপ্রদেশের এক জনসভায় প্রধানমন্ত্রী মোদী বলেন, ‘‘আপনার বাবাকে ওঁর পারিষদরা ‘মিস্টার ক্লিন’ বলতেন। যদিও জীবনের শেষ সময়ে পৌঁছে ওঁর পরিচয় হয়েছিল দেশের ‘সবচেয়ে দুর্নীতিগ্রস্ত’ ব্যক্তি।’’
rahul gandhi

ছবি-পিটিআই।

বাবার অপমানের জবাব দিলেন ছেলে। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী শনিবার সমালোচনা করেছিলেন প্রয়াত প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী রাজীব গাঁধীর। বফর্স কেলেঙ্কারির প্রসঙ্গ তুলে রাজীবকে দেশের ‘সবচেয়ে বেশি দুর্নীতিগ্রস্ত’ ব্যক্তি বলে চিহ্নিত করেছিলেন। তারই জবাবে কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গাঁধী রবিবার বলেন, ‘‘আমার বাবা তো আর আপনাকে বাঁচাতে পারবেন না। আপনার লড়াই তো শেষ হয়ে গিয়েছে। এ বার তৈরি হোন আপনার কর্মফলের জন্য।’’

রাহুলকে লক্ষ্য করে শনিবার উত্তরপ্রদেশের এক জনসভায় প্রধানমন্ত্রী মোদী বলেন, ‘‘আপনার বাবাকে ওঁর পারিষদরা ‘মিস্টার ক্লিন’ বলতেন। যদিও জীবনের শেষ সময়ে পৌঁছে ওঁর পরিচয় হয়েছিল দেশের ‘সবচেয়ে দুর্নীতিগ্রস্ত’ ব্যক্তি।’’

তারই জবাবে এ দিন টুইটে রাহুল লেখেন, ‘‘মোদীজি, আপনার লড়াইটা শেষ হয়ে গিয়েছে। আমার বাবার সম্পর্কে আপনার বিশ্বাস কিন্তু আপনাকে বাঁচাতে পারবে না।’’

বফর্স কামান কেনার জন্য একটি সুইডিশ সংস্থার থেকে ঘুষ নিয়েছিলেন রাজীব, এমনই অভিযোগ উটেছিল একসময়। যদিও রাজীব গাঁধীর বিরুদ্ধে ঘুষ নেওয়ার কোনও প্রমাণ নেই, হাইকোর্ট রায় দিয়েছে। আশির দশকে বফর্স কেলেঙ্কারির কথা সামনে আসে। ১৯৯১ সালে রাজীব গাঁধী মারা যান।

আরও পড়ুন- ‘আপনার বাবা সবচেয়ে বেশি দুর্নীতিগ্রস্ত’, বফর্স নিয়ে রাহুলকে আক্রমণ মোদীর​

আরও পড়ুন- বিতর্কে আসুন, মোদীকে ফের তির রাহুলের​

রাফাল যুদ্ধবিমান নিয়ে নরেন্দ্র মোদীকে বহু দিন ধরে বিঁধছেন রাহুল গাঁধী। এ দিন রাফালের প্রসঙ্গ মুখে না আনলেও রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা বলছেন, নির্বাচনী প্রচারে তার প্রত্যুত্তর দিতেই বফর্স প্রসঙ্গ টেনে আনেন তিনি।

প্রধানমন্ত্রী মোদীর ওই মন্তব্যের কড়া সমালোচনা করেছেন রাজীব কন্যা প্রিয়ঙ্কা গাঁধী বঢরা ও প্রাক্তন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী পি চিদম্বরম।

তাঁর টুইটে প্রিয়ঙ্কা লিখেছেন, ‘‘এই প্রধানমন্ত্রীই পুলওয়ামার শহিদদের দেখিয়ে ভোট চাইছেন। আর গত কাল উনি আমার বাবার মতো এক জন বড় শহিদকে অপমান করলেন। অমেঠীর ভোটাররা এর যোগ্য জবাব দেবেন। রাজীব গাঁধী অমেঠীর মানুষের জন্য তাঁর জীবন দিয়েছিলেন। হ্যাঁ, মোদীজি এই দেশ কখনও ছলনাকে মেনে নেয়নি। মেনে নিতে পারেনি।’’

২০১৯ লোকসভা নির্বাচনের ফল

আপনার মত