• সংবাদ সংস্থা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

উত্তরপ্রদেশে ফের শ্রমিকের উপর জীবাণুনাশক স্প্রে, নিন্দার ঝড়

Disinfect
এই যুবকের উপর ছড়ানো হয়েছে জীবাণুনাশক। ছবি: টুইটার থেকে নেওয়া

লকডাউনের শুরুর দিকে পরিযায়ী শ্রমিকদের উপর জীবাণুনাশক স্প্রে করতে দেখা গিয়েছিল উত্তরপ্রদেশে। তখন মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ তার নিন্দা করে বলেছিলেন, এই ধরনের ঘটনার যেন পুনরাবৃত্তি না হয়। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রকও জানিয়ে দিয়েছে, শরীরে কোনওপ্রকার জীবাণুনাশক স্প্রে করা স্বাস্থ্যের পক্ষে ক্ষতিকর। কিন্তু তার পরেও একই ঘটনা ঘটল লখনউয়ে। শহরের চারবাগ স্টেশনের বাইরে এক যুবকের উপর ফের জীবাণুনাশক স্প্রে করে দিলেন পুরকর্মীরা। ফের ঘটনার নিন্দায় সরব হয়েছে নানা মহল। ওই যুবকের পরিচয় জানা যায়নি। তবে পুলিশ-প্রশাসনের অনুমান, ভিন রাজ্য থেকে পরিযায়ী শ্রমিকদের যে ট্রেন গিয়েছে, তাতেই ফিরেছিলেন ওই যুবক ও তাঁর পরিবারের লোকজন।

মোবাইলে তোলা ছ’সেকেন্ডের ভিডিয়োতে দেখা যাচ্ছে, এক যুবকের উপর জীবাণুনাশক স্প্রে করে দিচ্ছেন পুরকর্মীরা। শোনা যাচ্ছে এক মহিলার কাকুতি-মিনতি। কিন্তু সে সবে কর্ণপাত না করে ওই যুবককে ভিজিয়ে দেওয়া হল। তবে লখনউ পুর কর্তৃপক্ষের দাবি, ওই ঘটনা ইচ্ছাকৃত নয়, অসাবধানতাবশতঃ হয়ে গিয়েছে। গাফিলতির অভিযোগে দুই কর্মীকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছে।

ট্রেনের পাশাপাশি ভিন রাজ্য থেকে বাসে করেও পরিযায়ী শ্রমিকদের রাজ্যে ফিরিয়ে নিয়ে যাচ্ছে উত্তরপ্রদেশ সরকার। সেই বাসগুলিতে নিয়মিত জীবাণুনাশক স্প্রে করার কাজ চলছে। এই ঘটনার সময়ও সেটাই চলছিল। জীবাণুমুক্ত করার দায়িত্বে থাকা লখনউ পুরসভার অফিসার ইন্দ্রমণি ত্রিপাঠী বলেন, ‘‘বাস জীবাণুমুক্ত করার কাজ চলছিল। হোসপাইপ চালু ছিল। একটি বাস জীবাণুমুক্ত করার পর অন্য বাসের দিকে যাওয়ার সময় মাঝখানে পড়ে যান ওই ব্যক্তি। এটা অনিচ্ছাকৃত।’’ তিনি আরও বলেন, ‘‘গত এক মাস ধরে পুরসভার পক্ষ থেকে বাস জীবাণুমুক্ত করার কাজ চলছে। কিন্তু কখনও এই রকম ঘটনা ঘটেনি। ওই দুই কর্মীকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছে। কারণ, অনিচ্ছাকৃত ভাবে ঘটনা ঘটলেও তাঁরা ভুল করেছেন।’’

আরও পডু়ন: ৯৯ দিনে দেশে করোনা আক্রান্ত ছাড়াল ৫০ হাজারের গণ্ডি, মৃত ১৭৮৩

আরও পডু়ন: অন্ধ্রের কারখানায় গ্যাস লিক, মৃত আট, অসুস্থ অন্তত ২০০০

প্রথম দফার লকডাউন শুরুর মুখে এই উত্তরপ্রদেশেরই বরেলিতে এক দল পরিযায়ী শ্রমিকের উপর জীবাণুনাশক স্প্রে করা হয়েছিল। সেই সময় তা নিয়ে নিন্দার ঝড় ওঠে সোশ্যাল মিডিয়ায়। তখন এক পদস্থ আমলা বলেছিলেন, শ্রমিকদের উপর জীবাণুনাশক স্প্রে করার ঘটনার তীব্র নিন্দা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী। এই ধরনের ঘটনা যাতে আর না ঘটে, তাও নিশ্চিত করতে বলেছেন তিনি।’’ কিন্তু তার পরেও একই ঘটনা ঘটায় প্রশ্ন উঠেছে পুলিশ প্রশাসন এবং পুরকর্মীদের ভূমিকা নিয়ে।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন