• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

‘নাগরিকত্ব বিল কী, বুঝুন’

Rajnath Singh
ছবি: পিটিআই।

আগামী সপ্তাহে সংসদে নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল পাশ করাতে সক্রিয় হল বিজেপি। আজ সংসদীয় দলের বৈঠকে সাংসদদের এ জন্য প্রস্তুত থাকতে বললেন দলের নেতা তথা প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিংহ। সব ঠিক থাকলে আগামিকাল কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভার বৈঠকে আলোচনার জন্য আসতে চলেছে ওই বিলটি। শাসক শিবির সূত্রে খবর, মন্ত্রিসভা কাল ছাড়পত্র দিলে শুক্রবার রাজ্যসভায় বিলটি পেশ হতে পারে। 

গত কালই রাঁচীতে এক সভায় অমিত শাহ জানিয়ে দিয়েছেন, ২০২৪ সালের আগে গোটা দেশে জাতীয় নাগরিক পঞ্জি (এনআরসি) তৈরি করবে সরকার। চিহ্নিত করা হবে অনুপ্রবেশকারীদের। কিন্তু অসমের ঘটনা থেকে শিক্ষা নিয়ে অ-মুসলিমদের মধ্যে দেশ ছাড়া হওয়ার আশঙ্কা দূর করতে নাগরিকত্ব সংশোধনী বিলটি আগে পাশ করাতে চায় নরেন্দ্র মোদী সরকার। যে বিলে বলা হয়েছে, আফগানিস্তান পাকিস্তান, বাংলাদেশ থেকে যে অ-মুসলিমেরা (হিন্দু, পার্সি, শিখ, খ্রিস্টান) ধর্মীয় পীড়নের কারণে এ দেশে শরণার্থী হিসেবে আশ্রয় নিতে বাধ্য হয়েছেন, তাঁদের নাগরিকত্ব দেবে সরকার। যদিও বিলে প্রতিবেশী দেশ থেকে আসা মুসলিমদের বিষয়ে কোনও উল্লেখ করা হয়নি। ধর্মের ভিত্তিতে কেন ওই ভেদাভেদ, তা নিয়ে ইতিমধ্যেই সিলেক্ট কমিটির বৈঠকে আপত্তি জানিয়েছেন অধিকাংশ বিরোধী দল। 

বিলটি সংসদে এলে শাসক শিবিরকে যে বিরোধিতার মুখে পড়তে হবে, তা বিলক্ষণ বুঝতে পারছেন বিজেপি নেতৃত্ব। তাই আজ রাজনাথ সিংহ সাংসদদের বিলটি ভাল করে বুঝে নিতে বলেন। সূত্রের মতে, বৈঠকে কেন বিলটি আনা হচ্ছে, বিলটির উদ্দেশ্য কী, তা একপ্রস্থ ব্যাখ্যা করেন রাজনাথ। বিজেপির এক নেতার কথায়, ‘‘এনআরসি-র ফলে অসমে ও পশ্চিমবঙ্গে হিন্দুদের মধ্যে প্রবল অনিশ্চয়তা তৈরি হয়েছে। যার প্রভাব পড়েছে পশ্চিমবঙ্গের উপনির্বাচনে। সে কারণে দল দ্রুত এ নিয়ে সংশয় কাটাতে বিলটি নিয়ে আসতে চাইছে।’’

আরও পড়ুন: বিকাশদা বনাম রাজা পিটার, জেল থেকেই জোর লড়াই 

সূত্রের খবর, কাল সকালে মন্ত্রিসভার বৈঠকে বিলটি আসতে চলেছে। বিলটি সেখানে পাশ হলে শুক্রবার রাজ্যসভায় বিলটি পেশ করার পরিকল্পনা নিয়েছেন অমিত শাহেরা। আগামী ১০ ডিসেম্বর আসু’র শহিদ দিবস। সরকার চাইছে সে দিন বিলটি সংসদে পাশ করাতে। 

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন