দক্ষিণ হাইলাকান্দিতে বেহাল চিকিৎসা পরিকাঠামো নিয়ে ধর্নায় বসলেন ক্ষুব্ধ এলাকাবাসী।

আজ দক্ষিণ হাইলাকান্দির জামিরা হাসপাতালের সামনে কৃষক মুক্তি সংগ্রাম সমিতির ডাকে স্থানীয় বাসিন্দারা বিক্ষোভ প্রদর্শন করেন। তাঁদের অভিযোগ, দক্ষিণ  হাইলাকান্দিতে চিকিৎসা পরিষেবা কার্যত নেই বললেই চলে। দ্রুত জামিরা হাসপাতালে ৩০ শয্যাবিশিষ্ট করতে হবে বলে তাঁরা দাবি জানান। পাশাপাশি সেখানে প্রোয়জনীয় সংখ্যক চিকিৎসক ও নার্স নিয়োগের দাবিও ওঠে। দ্রুত সেখানে  চিকিৎসক নিয়োগ করা না হলে কৃষক মুক্তি আরও বড় আন্দোলন গড়ে তুলবে বলে হুঁশিয়ারি দেওয়া হয়।

এলাকার বাসিন্দাদের বক্তব্য, জামিরা হাসপাতালে প্রসুতি বিভাগ এখন বন্ধ। কয়েক মাস ধরে চিকিৎসকের দেখা মেলে না।

কৃষক মুক্তি নেতা জহিরউদ্দিন লস্কর বলেন, ‘‘এ সবের জেরে চূড়ান্ত সমস্যায় পড়ছেন সাধারণ মানুষ।’’ তিনি জানান, দক্ষিণ হাইলাকান্দির বেতছড়া, ঝানলাছড়া, দাড়িয়ারঘাট, বলদাবলদি, নন্দগ্রামের মানুষ হাসপাতালে এসে উপযুক্ত চিকিৎসা পাচ্ছেন না।

ধর্না চলাকালীন জামিরা হাসপাতালে পৌঁছন কাটলিছড়ার মহকুমাধিপতি জেমস আইন্ড। তিনি  আন্দোলনকারীদের কাছ থেকে স্মারকপত্র গ্রহণ করেন। জেলা প্রশাসন হাসপাতালের পরিস্থিতি জানেন বলেও মন্তব্য করেন। একইসঙ্গে আন্দোলনকারীদের আশ্বাস দিয়ে তিনি জানান, ১০ দিনের মধ্যে জেলা প্রশাসনের কর্তারা জামিরায় এসে এলাকাবাসীর সঙ্গে বৈঠক করে সমস্যা সমাধানসূত্রের খোঁজ করবেন।

এ দিনের ধর্নায় কৃষক মুক্তি সংগ্রাম সমিতির জেলা সভাপতি সরিফউদ্দিন মাজারভুঁইঞা, সম্পাদক জহিরউদ্দিন লস্কর, আলতা হুসেন চৌধুরীও সামিল ছিলেন।