ঘরের ভিতরেই খেলছিল নিশান্ত এবং নক্ষ। বছর তিনেকের দুই যমজ ভাই। খেলতে খেলতে তারা কোনও ভাবে ঘরে রাখা ওয়াশিং মেশিন বেয়ে তার ভিতর নেমে পড়ে। পরে সেই মেশিন থেকেই দুই ভাইয়ের দেহ উদ্ধার হয়। প্রাথমিক তদন্তে পুলিশের অনুমান, ওয়াশিং মেশিন ভর্তি জলে ডুবেই তাদের মৃত্যু হয়েছে।

অন্য দিনের মতো শনিবারও দুপুরবেলা ঘরের কাজ করছিলেন নিশান্ত-নক্ষের মা। দুই ভাই ঘরের এ প্রান্ত থেকে ও প্রান্ত খেলে বেড়াচ্ছিল। পুলিশের কাছে ওই ভদ্রমহিলা জানিয়েছেন, জামাকাপড় কাচাকাচি করবেন বলে তিনি ওয়াশিং মেশিনে জল ভরেছিলেন। কিন্তু, জামাকাপড় দিতে গিয়ে দেখেন ঘরে ডিটারজেন্ট পাউডার নেই। এর পরেই দুই ছেলেকে ঘরে রেখে ফ্ল্যাটের নীচে দোকানে ডিটারজেন্ট আনতে গিয়েছিলেন দিল্লির রোহিনি এলাকার অবন্তিকা অ্যাপার্টমেন্টের ওই বাসিন্দা।

মিনিট ছয়েক পরে তিনি ঘরে ফিরে ছেলেদের না দেখে খোঁজাখুঁজি শুরু করেন। এ ঘর ও ঘর দেখে, না পেয়ে তিনি তাঁর স্বামীকে ফোন করেন। তিনি তখন বাইরে ছিলেন। এর পর পুলিশে খবর দেওয়া হয়। পুলিশ এসে তন্ন তন্ন করে খুঁজে শেষে ওয়াশিং মেশিনের ডালা খুলে দেখে, তার জলে ডুবে রয়েছে দুই ভাইয়ের দেহ।

এর পর দুই ভাইকে নিয়ে কাছের হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। চিকিত্সকেরা জানিয়ে দেন, জলের ভিতর শ্বাসরোধ হয়েই মারা গিয়েছে তারা। ছেলেদের মৃত্যুর খবর প্রথমে বিশ্বাস করতে পারেননি ওই দম্পতি। তারা সেখান থেকে অন্য এক হাসপাতালে নিয়ে যান ছেলেদের দেহ। সেখানেও চিকিত্সকেরা একই কথা জানান। পুলিশ জানিয়েছে, ময়নাতদন্তের পর মৃত্যুর প্রকৃত কারণ জানা যাবে।