ধর্ষণে অভিযুক্ত সদ্য-বহিষ্কৃত বিজেপি বিধায়ক কুলদীপ সিংহ সেঙ্গারের সাঙ্গোপাঙ্গদের হাত থেকে রেহাই পায়নি উন্নাও কাণ্ডে নির্যাতিতার বোনও। শ্লীলতাহানি করা হয়েছিল সেই মেয়েটিরও। মহিলা কমিশনের সদস্যদের কাছে এই অভিযোগ জানালেন নির্যাতিতার মা। 

মায়ের অভিযোগ, এক দিন মামলা তুলে নেওয়ার জন্য তাঁদের হুমকি দিতে এসেছিল বিধায়কের দলবল। তখনই বাড়ির ছোট মেয়েটির শ্লীলতাহানি করে তারা। গাছে বেঁধে পেটানো হয় মেয়েদের বাবাকে। তাদের ঠাকুমাকেও নিগ্রহ করা হয়। পরিবারের অভিযোগ, ২০১৮ সালের ৩ এপ্রিল বিধায়কের ভাই অতুলের হাতে বেধড়ক মার খেয়ে কিডনিতে চোট লেগেছিল নির্যাতিতার বাবার। অথচ পুলিশ তাঁকেই অস্ত্র আইনে গ্রেফতার করে। পুলিশি হেফাজতে মারা যান প্রৌঢ়। তখনও গ্রেফতার করা যায়নি বিধায়ককে। নির্যাতিতার মায়ের কথায়, ‘‘ওরা আমার স্বামীকে মারল। তার পর তো ওঁকে নিয়েই চলে গেল। সবেতেই বিধায়ক কলকাঠি নেড়েছে। সরকারের সাহায্য পাইনি।’’