• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

মহাকাশে পাড়ি দিল ভারতের নতুন ‘দূত’

GSAT-30
মহাকাশের পথে জিস্যাট-৩০। পিটিআই

দেশের টেলি-যোগাযোগ ব্যবস্থাকে আরও উন্নত করতে নতুন একটি কৃত্রিম উপগ্রহ পাঠাল ভারতীয় মহাকাশ গবেষণা সংস্থা (ইসরো)। তারা জানিয়েছে, ভারতীয় সময় বৃহস্পতিবার রাত ২টো ৩৫ মিনিটে ফ্রেঞ্চ গায়ানা থেকে এরিয়ান-৫ রকেটে চাপিয়ে ‘জিস্যাট-৩০’ নামে ওই উপগ্রহটিকে মহাকাশে পাঠানো হয়। ওই রকেটে একটি ইউরোপীয় কৃত্রিম উপগ্রহও মহাকাশে পাড়ি দিয়েছে। ইসরো সূত্রের খবর, ইনস্যাট-৪ উপগ্রহ এত দিন যে কাজ করত তার জায়গা নেবে ‘জি-স্যাট ৩০’। 

ইসরোর চেয়ারম্যান কে শিবন জানিয়েছেন, প্রায় সাড়ে তিন হাজার কিলোগ্রাম ওজনের এই নতুন কৃত্রিম উপগ্রহটি মহাকাশ থেকে ডিজিট্যাল প্রযুক্তিনির্ভর তথ্য লেনদেনের কাজে লাগবে। ‘জিস্যাট-৩০’-র মাধ্যমে মূলত ডিটিএইচ, এটিএম, শেয়ার বাজার, টেলিভিশন সংক্রান্ত পরিষেবা উন্নত হবে। ভারত ছাড়াও অস্ট্রেলিয়া ও আরব দুনিয়ার একাংশেও এই উপগ্রহ পরিষেবা দেবে বলে শিবন জানান।

ইসরো জানিয়েছে, উৎক্ষেপণের ৩৫ মিনিট ২৫ সেকেন্ড পরে রকেট থেকে আলাদা হয়ে যায় ভারতীয় উপগ্রহটি। বেঙ্গালুরুর কাছে হাসানে থাকা ইসরোর ‘মাস্টার কন্ট্রোল ফেসিলিটি’ শাখার ইঞ্জিনিয়ারেরা তার পর থেকে সেটিকে নিয়ন্ত্রণ করছেন তাঁরা। ‘জিস্যাট-৩০’ আপাতত একটি উপবৃত্তাকার ‘জিয়োসিনক্রোনাস’ কক্ষপথে রয়েছে। উপগ্রহটি তার যথাযথ পরিস্থিতিতে রয়েছে। আগামী দিনে আরও দু’বার উপগ্রহটির উচ্চতা বদল করা হবে। শেষমেশ সেটিকে নিরক্ষরেখার থেকে ৩৬ হাজার কিলোমিটার উপরের একটি কক্ষপথে স্থাপন করা হবে। তার পরেই সে কাজ শুরু করবে বলে ইসরো সূত্রের খবর। 

ইসরো সূত্র জানিয়েছে, ‘ইনস্যাট’ গোত্রের উপগ্রহগুলি দিয়ে টেলি-যোগাযোগ সংক্রান্ত পরিষেবার কাজ শুরু হয়েছিল। এ বার সেগুলির মেয়াদ ফুরোতে থাকায় ‘জিস্যাট’ উপগ্রহগুলিকে সেই কাজে নিয়োগ করা হচ্ছে।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন