Advertisement
২০ মে ২০২৪
Living Rock

জীবন্ত পাথর! ভাত-স্যালাডের সঙ্গে খাওয়া যায় এই পাথরের মাংসও

জীবন্ত পাথরের আসল নাম ‘প্যুরা চিলেনসিস’। পেরু এবং চিলির বিভিন্ন এলাকায় এই পাথরটি পাওয়া যায়।

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা শেষ আপডেট: ১১ সেপ্টেম্বর ২০২২ ১৬:৩৬
Share: Save:
০১ ১২
‘হবিট’ ছবির ‘ট্রোলস’-এর কথা মনে পড়ে? সূর্যের আলো পড়লে সেই অদ্ভুত জীবগুলি পাথরে পরিণত হত।

‘হবিট’ ছবির ‘ট্রোলস’-এর কথা মনে পড়ে? সূর্যের আলো পড়লে সেই অদ্ভুত জীবগুলি পাথরে পরিণত হত।

০২ ১২
কিন্তু কখনও ভেবেছেন রাস্তায় চলাফেরার পথে পাথরে পা পড়ার পর সেই পাথর থেকে রক্ত বেরোতে শুরু করবে? কোনও ফ্যান্টাসি ঘরানার গল্প অথবা সিনেমাতে নয়, বরং এই পাথরের অস্তিত্ব বাস্তবেই রয়েছে।

কিন্তু কখনও ভেবেছেন রাস্তায় চলাফেরার পথে পাথরে পা পড়ার পর সেই পাথর থেকে রক্ত বেরোতে শুরু করবে? কোনও ফ্যান্টাসি ঘরানার গল্প অথবা সিনেমাতে নয়, বরং এই পাথরের অস্তিত্ব বাস্তবেই রয়েছে।

০৩ ১২
জীবন্ত এই পাথরের আসল নাম ‘প্যুরা চিলেনসিস’। পেরু এবং চিলির বিভিন্ন এলাকায় এই পাথর পাওয়া যায়।

জীবন্ত এই পাথরের আসল নাম ‘প্যুরা চিলেনসিস’। পেরু এবং চিলির বিভিন্ন এলাকায় এই পাথর পাওয়া যায়।

০৪ ১২
সমুদ্রের জলের গভীরে অন্ধকার পরিবেশে এই পাথর বেঁচে থাকে।

সমুদ্রের জলের গভীরে অন্ধকার পরিবেশে এই পাথর বেঁচে থাকে।

০৫ ১২
জীবন্ত পাথর খাদ্য হিসাবে জলের মধ্যে থাকা অণুজীব গ্রহণ করে।

জীবন্ত পাথর খাদ্য হিসাবে জলের মধ্যে থাকা অণুজীব গ্রহণ করে।

০৬ ১২
আবার এই পাথর-জীবগুলিকে খায় মানুষও। পেরু এবং চিলির স্থানীয়রা এই পাথরটির ভিতরের ‘মাংস’ খান।

আবার এই পাথর-জীবগুলিকে খায় মানুষও। পেরু এবং চিলির স্থানীয়রা এই পাথরটির ভিতরের ‘মাংস’ খান।

০৭ ১২
অনেকে ভাত এবং স্যালাডের সঙ্গে এই পাথরের মাংস খাওয়া পছন্দ করেন।

অনেকে ভাত এবং স্যালাডের সঙ্গে এই পাথরের মাংস খাওয়া পছন্দ করেন।

০৮ ১২
এই পাথর-জীবের অন্যতম বৈশিষ্ট্য হল, এর রক্তে ভ্যানাডিয়াম পাওয়া যায়।

এই পাথর-জীবের অন্যতম বৈশিষ্ট্য হল, এর রক্তে ভ্যানাডিয়াম পাওয়া যায়।

০৯ ১২
এই জীবগুলি পুরুষ হিসাবে জন্ম নিলেও পরিণত বয়সে আসার পর উভলিঙ্গে পরিণত হয়।

এই জীবগুলি পুরুষ হিসাবে জন্ম নিলেও পরিণত বয়সে আসার পর উভলিঙ্গে পরিণত হয়।

১০ ১২
প্রজননের সময় তাদের শরীর থেকে একইসঙ্গে শুক্রাণু ও ডিম্বাণু উৎপন্ন হয়। মিলিত হয়ে ব্যাঙাচির মতো দেখতে জীব তৈরি হয়।

প্রজননের সময় তাদের শরীর থেকে একইসঙ্গে শুক্রাণু ও ডিম্বাণু উৎপন্ন হয়। মিলিত হয়ে ব্যাঙাচির মতো দেখতে জীব তৈরি হয়।

১১ ১২
এগুলি পরে জলের ভিতরের পাথরের সঙ্গে লেগে থাকা অবস্থায় দীর্ঘ দিন থাকে।

এগুলি পরে জলের ভিতরের পাথরের সঙ্গে লেগে থাকা অবস্থায় দীর্ঘ দিন থাকে।

১২ ১২
একটু বড় হওয়ার পর তাদের দেহ পাথর থেকে আলাদা হয়ে যায়। ‘সেল্ফিং’ নামের এই বিশেষ প্রক্রিয়ার মাধ্যমে জন্ম নেয় আরও একটি জীবন্ত পাথর।

একটু বড় হওয়ার পর তাদের দেহ পাথর থেকে আলাদা হয়ে যায়। ‘সেল্ফিং’ নামের এই বিশেষ প্রক্রিয়ার মাধ্যমে জন্ম নেয় আরও একটি জীবন্ত পাথর।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE