• নিজস্ব প্রতিবেদন
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

বিনোদন

সুজানের সঙ্গে পরকীয়া, শাহরুখ-কর্ণের সঙ্গে বন্ধুত্বে ফাটল... সুদিনের অপেক্ষায় অর্জুন

শেয়ার করুন
১৭ 1
মডেলিং বা অভিনয়, কোনওটাই তাঁর করার ইচ্ছে ছিল না ছোটবেলায়। বরং চেয়েছিলেন অ্যাথলিট হতে। কিন্তু জীবনের মোড় ঘুরে গেল দিল্লির একটি পার্টিতে। সেখানে রোহিত বালের নজরে পড়েন অর্জুন রামপাল। রোহিত তাঁকে পরামর্শ দেন, মডেলিং করতে।এর পরই নিজের গ্রুমিং শুরু করেন অর্জুন। মডেলিং দুনিয়ায় দ্রুত উঠে আসেন জনপ্রিয়তার শীর্ষে। সংবাদপত্র, পত্রিকা অথবা বৈদ্যুতিন মাধ্যম, সর্বত্রই বিজ্ঞাপনের মডেল হিসেবে তাঁর চাহিদা ছিল তুঙ্গে।
১৭ 3
মডেল থেকে সুপারমডেল হয়ে উঠতে সময় লাগেনি অর্জুন রামপালের। এই রকম সময়ই এল অভিনয়ের সুযোগ। অশোক মেটা এবং শান্তনু সোরে তাঁকে দু’টি ছবি, ‘মোক্ষ’ এবং ‘জড়’-এ অভিনয়ের প্রস্তাব দিলেন। তাঁদের কাছে এক বছর সময় চেয়ে নিলেন। গেলেন নিউইয়র্ক। অভিনয় শিখতে। এর পর মুম্বই ফিরে আবার তিনি অভিনয় আর নাচের প্রশিক্ষণ নেন।
১৭ 4
কিন্তু বিদেশ থেকে অভিনয় শিখে এসেও লাভ হল না। আসতে পারলেন না জনপ্রিয়তার প্রথম সারিতে। সাবলীল নয়, এ রকমই বলা হত তাঁর অভিনয়কে। এমনও বলা হত, কোনও দৃশ্যে তাঁর উপস্থিতি নিষ্প্রাণ আসবাবের মতো।
১৭ 5
তবে এ দু’টি ছবির আগে অর্জুন রামপাল অভিনয় করেন আরও একটি ছবিতে। রাজীব রায় পরিচালিত সেই ছবির নাম ‘প্যায়ার ইশক অউর মোহাব্বত’। শোনা যায়, আন্ডারওয়ার্ল্ডের চাপে এই ছবিতে রাজীব রায় নিয়েছিলেন মনিকা বেদীকে। কিন্তু এই ছবি বক্সঅফিসে মুখ থুবড়ে পড়ে।
১৭ 6
পর পর অর্জুন রামপালের ছবি ফ্লপ হয়। দর্শকমহলে চরম সমালোচিত হতে থাকে তাঁর অভিনয়। ইন্ডাস্ট্রিতে কিছুটা হলেও তিনি পায়ের নীচে জমি পান ‘আঁখে’ ছবিতে। এখানে অমিতাভ বচ্চনের সঙ্গে স্ক্রিন শেয়ার করেন তিনি।
১৭ 7
এর পর আবার শুরু ব্যর্থতার পালা। ‘দিল হ্যায় তুমহারা’, ‘দিল কা রিস্তা’ ছবি দু’টি ফ্লপ হয়। ক্রমে খাদের কিনারায় এসে পৌঁছয় অর্জুনের কেরিয়ার। এই সময় তাঁর কাছে ‘হমরাজ’ ছবির সুযোগ আসে। কিন্তু সেই অফার তিনি ফিরিয়ে দেন।
১৭ 8
তাঁর বদলে অভিনয় করেন অক্ষয় খন্না। এবং ছবিটি সফল হয়। ২০০১ থেকে ২০০৬ অবধি মোট ১৪টি ছবিতে অভিনয় করেন। তার মধ্যে ‘আঁখে’ ছাড়া কোনও ছবি সফল হয়নি। জীবনের এই কঠিন সময়ে অর্জুনের পাশে ছিলেন তাঁর স্ত্রী, মেহর জেসিয়া।
১৭ 9
অভিনয়ে আসার আগেই সুপারমডেল মেহরের সঙ্গে তাঁর বিয়ে হয়েছিল। তবে যতই ব্যর্থ হন না কেন, অর্জুনের ফ্যান ফলোয়িং-এ ভাটার টান আসেনি। তাঁর সুদর্শন চেহারায় মুগ্ধ ছিলেন মহিলা দর্শকরা।
১৭ 10
অভিনয়ে বিশেষ সুবিধে করতে না পেরে ২০০৬ সালে অর্জুন তাঁর স্ত্রী মেহরের সঙ্গে একটি প্রোডাকশন হাউস শুরু করেন। এই সময়েই তাঁকে ‘কভি আলবিদা না কহেনা’ ছবিতে অভিনয়ের সুযোগ দেন কর্ণ জোহার। এই ছবিতে অভিনয়ের সূত্রে কর্ণ জোহর এবং শাহরুখ খান, দু’জনের সঙ্গে অর্জুনের সম্পর্কের ভিত মজবুত হয়।
১০১৭ 11
এর পর ‘ডন’, ‘ওম শান্তি ওম’ ছবিতে অভিনয়ের সূত্রে ইন্ডাস্ট্রিতে পরিচিত পান তিনি। ২০০৮ সালে ‘রক অন’ ছবিতে অর্জুনের অভিনয় পুরো দৃশ্যটা আমূল বদলে দেয়। ইন্ডাস্ট্রির প্রথম সারির নায়কের তালিকায় তিনি উঠে আসেন। পার্শ্বচরিত্রে অভিনয়ের সুবাদে পান জাতীয় পুরস্কার।
১১১৭ 12
এর পর আবার ব্যর্থতার টানাপড়েন। অর্জুনকে সাফল্যের স্বাদ দিতে তাঁকে ‘রা ওয়ান’ ছবিতে খলনায়কের ভূমিকায় মনোনীত করেন শাহরুখ। কিন্তু এই ছবি থেকেই তাঁদের বন্ধুত্বে ফাটল ধরে। এ সময়ে শাহরুখ-প্রিয়ঙ্কা চোপড়া সম্পর্ক বেশ গুঞ্জরিত ইন্ডাস্ট্রিতে। অর্জুন নাকি শাহরুখকে পরামর্শ দেন এই সম্পর্ক থেকে সরে আসতে।
১২১৭ 13
এই পরামর্শ নাকি ভাল ভাবে নেননি শাহরুখ। এ রকম একটা সময়ে আবার নতুন করে বিতর্কে জড়িয়ে পড়েন অর্জুন রামপাল। ইন্ডাস্ট্রিতে বলা হয়, অর্জুনের জন্যই হৃতিক রোশন আর সুজানের বিচ্ছেদ হয়েছে। কারণ সুজান আর অর্জুন তখন ঘনিষ্ঠ সম্পর্কে ছিলেন।
১৩১৭ 14
ব্যক্তিগত জীবনে এই বিতর্কের সঙ্গে যোগ হয় নতুন সমস্যা। অভিযোগ ওঠে, অর্জুন তাঁর রেস্তোরাঁর ভাড়া দু’বছর ধরে দেননি। বকেয়া ছিল চার কোটি টাকা। তার নামে মামলাও করা হয়। শোনা যায়, তিনি সে সময় দেউলিয়া হয়ে গিয়েছিলেন। যদিও সেই দাবি তিনি পরে অস্বীকার করেন।
১৪১৭ 15
কেরিয়ারের পাশাপাশি ব্যক্তিগত জীবনও তখন যথেষ্ট টালমাটাল। সুজানের সঙ্গে সম্পর্কের গুঞ্জন ওঠার পরে ২০১৫ সালে মেহর জেসিয়া বাড়ি ছেড়ে চলে যান তাঁর বাবা মায়ের কাছে। কেরিয়ারে ঘুরে দাঁড়ানোর আশায় নিজের প্রোডাকশন হাউস থেকে অর্জুন রামপাল বানান ‘ড্যাডি’।
১৫১৭ 16
এই সময় আইপিএল পার্টিতে তাঁর সঙ্গে আলাপ হয় দক্ষিণ আফ্রিকার মডেল গ্যাব্রিয়েলার। আইপিএল-এ গ্যাব্রিয়েলা চিয়ারলিডার ছিলেন। শোনা যায়, মেহর জেসিয়ার সঙ্গে বিচ্ছেদের আগেই অর্জুনের সঙ্গে সম্পর্কের জেরে সন্তানসম্ভবা হয়ে পড়েছিলেন গ্যাব্রিয়েলা। ২০১৯-এ জন্ম নেয় সন্তান।
১৬১৭ 17
কিন্তু বিতর্ক যেন পিছু ছাড়ছিল না অর্জুনের। ২০১৯ সালেই আবার এক কোটি টাকা অনাদায়ের অভিযোগ ওঠে তাঁর বিরুদ্ধে। আবার সে বছরই মেহর জেসিয়ার সঙ্গে তাঁর ২১ বছরের দাম্পত্য শেষ হয়।
১৭১৭ 18
অর্জুন এখন গ্যাব্রিয়েলার সঙ্গে লিভ ইন করেন। ব্যক্তিগত জীবনে ঝড় কিছুটা শান্ত হলেও কেরিয়ারে আর আগের জায়গায় পৌঁছতে পারেননি তিনি। শাহরুখ এবং কর্ণ জোহারের সঙ্গে তাঁর সম্পর্কের তিক্ততার জের এখনও স্পষ্ট তাঁর কেরিয়ারের ভাঙা পালে।

Advertisement

Advertisement

সবাই যা পড়ছেন

Advertisement

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
বাছাই খবর
আরও পড়ুন