Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৮ মে ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

বিশ্রামে থাকলে হয়তো সিডনি চলে যেতাম

আমার প্রিয় ক্রিকেটার সচিন তেন্ডুলকর। আমি যতগুলো বিশ্বকাপ দেখেছি, এ বারই প্রথম ওঁকে ছাড়া ভারতীয় দলের খেলা দেখে আনন্দ পেতে হচ্ছে আমাকে। ব্যাডম

সাইনা নেহওয়াল
২৫ মার্চ ২০১৫ ০০:০০
Save
Something isn't right! Please refresh.
Popup Close

আমার প্রিয় ক্রিকেটার সচিন তেন্ডুলকর। আমি যতগুলো বিশ্বকাপ দেখেছি, এ বারই প্রথম ওঁকে ছাড়া ভারতীয় দলের খেলা দেখে আনন্দ পেতে হচ্ছে আমাকে। ব্যাডমিন্টনের বাইরে অন্য সব খেলার মধ্যে ক্রিকেটই আমার সবচেয়ে প্রিয়। আর মহেন্দ্র সিংহ ধোনির এ বারের বিশ্বকাপ টিমটাও দারুণ খেলছে। তার উপর কাপ-সেমিফাইনাল বলে কথা! এই সময় সম্পূর্ণ পেশাগত বিশ্রামে যদি থাকতাম, তা হলে হয়তো সিডনি চলে যেতাম। গত বছর অস্ট্রেলিয়ান ওপেন সুপার সিরিজ চ্যাম্পিয়ন হওয়ার সময় ও দেশে আমার কিছু ভাল বন্ধু হয়েছে। তবে সেই ইচ্ছে আর পূরণ হচ্ছে কোথায়! এই সপ্তাহটাই আমার পুরো কাটতে পারে দিল্লিতে ইন্ডিয়া ওপেন খেলে।

শুনলাম আনন্দবাজারই লিখেছে, ভারত যদি বিশ্বকাপ ফাইনালে উঠে রবিবার সেই ম্যাচটাও জেতে, আর আমিও ওই দিন ইন্ডিয়া ওপেন সুপার সিরিজ ফাইনাল খেলি, তা হলে ধোনির টিম ইন্ডিয়ার মতো সাইনাও একই দিনে নিজেদের খেলায় বিশ্বের এক নম্বর হবে। আমিও স্বপ্ন দেখছি, সেই মধুর কাকতালীয়র! আপাতত আমার কাছে সুখবর, বৃহস্পতিবার দিল্লিতে আমার ম্যাচ থাকছে না। বুধবার প্রথম রাউন্ডের পর আমার কোয়ার্টার ফাইনাল শুক্রবার হওয়ার কথা। সে জন্য ঠিক করে রেখেছি বৃহস্পতিবার সাতসকালে প্র্যাকটিস, ট্রেনিং সেরে-টেরে সকাল ন’টা থেকেই টিভির সামনে বসে পড়ব। ভারত-অস্ট্রেলিয়া বিগ সেমিফাইনাল গোটাটা দেখতেই হবে। ম্যাচটা নিয়ে কিন্তু আমার যথেষ্ট টেনশন আছে!

পারবে তো ভারত টুর্নামেন্টে এত দিনের ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে? অস্ট্রেলিয়া দারুণ শক্তিশালী। আমি ক্রিকেট যতটুকু বুঝি, তাতে অস্ট্রেলিয়া টিমে কোথাও কোনও দুর্বলতা আছে বলে তো দেখছি না। অনেকে যেমন বিশ্বকাপের আগে লম্বা অস্ট্রেলিয়া সফরে ভারতের একটাও টেস্ট আর ওয়ান ডে জিততে না পারার উপর ভিত্তি করে এই ম্যাচটার ভাগ্য কী হবে সেটা বোঝানোর চেষ্টা করছেন। আমি তাঁদের দলে নেই। এটা বিশ্বকাপ সেমিফাইনাল। সম্পূর্ণ অন্য মঞ্চ, অন্য ম্যাচ। এখানে এই দু’দলের লড়াইয়ে এমনকী সাম্প্রতিক অতীতেও কী হয়েছে, কী হয়নি সেটা বিচার্য নয়। বরং সেই দিন যারা ভাল খেলবে তাদের জেতার সম্ভাবনাই অনেক বেশি। যদি না অকল্যান্ডের প্রথম সেমিফাইনালের মতো কোনও ম্যাকালাম কিংবা শেষ ওভারে কোনও এলিয়ট ক্রিকেটদেবতা হয়ে উঠে অলৌকিক কিছু ঘটিয়ে দেয়! তবে ভারতীয় টিমের এই মুহূর্তে যা ফর্ম আর বডি ল্যাঙ্গুয়েজ, তাতে অস্ট্রেলিয়ার কাজটা আদৌ সহজ হবে না, গ্যারান্টি। এমনকী, সিডনিতে হেরেও যেতে পারে মাইকেল ক্লার্করা।

Advertisement


Something isn't right! Please refresh.

Advertisement