নিদাহাস ট্রফির পরের দুটো ম্যাচে ভারত ও বাংলাদেশের বিরুদ্ধে খেলা হচ্ছে না দীনেশ চান্ডিমালের। স্লো ওভার রেটের মাত্রা এতটাই বেশি ছিল যে দু’ম্যাচের জন্য নির্বাসিত করা হল তাঁকে। সাধারণত, ম্যাচ ফি থেকে কেটে নেওয়া হয় স্লো ওভার রেটের জন্য। সঙ্গে সাবধানও করে দেওয়া হয়। কিন্তু এক্ষেত্রে সরাসরি নির্বাসনের কবলে পড়তে হল শ্রীলঙ্কার অধিনায়ককে।

গত শনিবার বাংলাদেশের বিরুদ্ধে ম্যাচে চার ওভার পিছিয়ে বল করেছে শ্রীলঙ্কা। আর দলের দায়ভার সম্পূর্ণটাই বর্তায় তাঁরই উপর। আইসিসির মিডিয়া রিলিজে বলা হয়েছে, ‘‘আইসিসির প্লেয়ার আচরণ বিধির ধারা ২.৫.২ অনুসারে এটা ‘সিরিয়াস ওভার রেট অফেন্স’। প্লেয়ারদের প্রথম দুই ওভারের জন্য ১০ শতাংশ কেটে নেওয়া হয়। এর পর যা ওভার সংযোজন হয় তার জন্য ২০ শতাংশ কাটা হয়। শ্রীলঙ্কা নির্ধারিত সময়ের মধ্যে ওভার শেষ করতে পারেনি। যে কারণে অধিনায়ককে দু’ম্যাচের জন্য নির্বাসিত করা হয়েছে।’’

দুটো নির্বাসন পয়েন্ট হয়ে গেলে একটি টেস্ট অথবা দুটো ওয়ান ডে বা টি২০ ম্যাচে নির্বাসিত হতে হবে। চান্ডিমাল ১২ ও ১৬ মার্চের দুটো গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচ খেলতে পারবেন না। পাশাপাশি দলের সকল প্লেয়ারের ম্যাচ ফি-র ৬০ শতাংশ কেটে নেওয়া হয়েছে। রবিবার শুনানির পর এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। আগামী ১২ মাসের মধ্যে যদি চান্ডিমালের অধিনায়কত্বে আবারও ওভার রেট নিয়ম লঙ্ঘন করে তা হলে দুই থেকে আট নির্বাসন পয়েন্ট পাবেন চান্ডিমাল।

আরও পড়ুন
চুটিয়ে সংসার জীবন উপভোগ করছেন বিরুষ্কা

এর সঙ্গে এক ওভার পিছিয়ে থাকায় বাংলাদেশ অধিনায়ক মাহমুদুল্লাহর ম্যাচ ফি-র ২০ শতাংশ কেটে নেওয়া হয়েছে। আর তার দুই বোলারের ১০ শতাংশ করে। আগামী ১২ মাসের মধ্যে যদিও আবার মাহমুদুল্লাহর অধিনায়কত্বে স্লো ওভার রেটের কবলে পড়ে বাংলাদেশ তা হলে নির্বাসিত হতে হবে তাঁকে।