• নিজস্ব প্রতিবেদন
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

হিউজ-আতঙ্ক ফিরিয়েও পরে সুস্থ করুণারত্নে

Dimuth
উদ্বেগ: আহত হয়ে মাঠ ছাড়ছেন দিমুথ করুণারত্নে। শনিবার মানুকা ওভালে প্যাট কামিন্সের বাউন্সারে ঘাড়ে আঘাত পান শ্রীলঙ্কার ওপেনার। এএফপি

শনিবার ক্যানবেরার মানুকা ওভালে আবারও ফিরে এল ফিল হিউজের স্মৃতি। প্যাট কামিন্সের বাউন্সার আছড়ে পড়ল শ্রীলঙ্কা ব্যাটসম্যান দিমুথ করুণারত্নের ঘাড়ের পিছনের দিকে। অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে তাঁদের দ্বিতীয় টেস্টের দ্বিতীয় দিনে।  

আঘাত লাগার পরেই মাটিতে লুটিয়ে পড়েন তিনি। তৎক্ষণাৎ শুশ্রূষা শুরু হয়ে যায় তাঁর। ছুটে আসেন অস্ট্রেলিয়া দলের ক্রিকেটারেরাও। প্রাথমিক চিকিৎসা শুরু করেন শ্রীলঙ্কা দলের ফিজিয়ো। অবিলম্বে তাঁকে স্ট্রেচারে শুইয়ে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার নির্দেশ দেন আম্পায়াররা। পরে অবশ্য স্বস্তির খবর শুনিয়েছেন শ্রীলঙ্কা দলের কোচ চন্দিকা হাতুরাসিংহ। তিনি জানান, মাথার পিছন দিকে চোট লাগলেও করুণারত্নে সংজ্ঞা হারাননি। হাসপাতালে চিকিৎসকদের সঙ্গে কথা বলেছেন। হাতুরাসিংহ বলেন, ‘‘শুরুতে আমরাও আতঙ্কগ্রস্ত হয়ে পড়েছিলাম। তবে দিমুথ পরে দুই আম্পায়ার এবং ফিজিয়োর সঙ্গে কথা বলেছে।’’ তিনি আরও বলেছেন, ‘‘ঘাড়ের পিছন দিকে বলের আঘাত লাগে। তাই ও বেসামাল হয়ে পড়ে। এখন ভয়ের কারণ নেই।’’

করুণারত্নের মাঠেই লুটিয়ে পড়ার দৃশ্যে উদ্বেগ ছড়িয়ে পড়ে অস্ট্রেলিয়া শিবিরেও। শনিবার টেস্টের দ্বিতীয় দিনের খেলা শেষ হওয়ার পর দিমুথের দ্রুত সুস্থ হয়ে ওঠার জন্য প্রার্থনা করেন প্যাট কামিন্স। সাংবাদিক সম্মেলনে তিনি বলেছেন, ‘‘দিমুথ সুস্থ রয়েছে, এই খবরটাই আমার কাছে সব চেয়ে স্বস্তির।’’ অস্ট্রেলীয় পেসার আরও বলেছেন, ‘‘ওই ভাবে কোনও ব্যাটসম্যান মাঠে লুটিয়ে পড়ছে, সেই দৃশ্যটা কোনও সময়েই সুখকর নয়। কেউই সে ছবি দেখতে চান না। ইতিবাচক বিষয় হল, চোট সামলে ফিজিয়োর সঙ্গে ও কথা বলেছে। স্বাভাবিক ভাবেই মাঠ ছেড়েছে। দিমুথ দ্রুত সুস্থ হয়ে উঠুক, সেই প্রার্থনাই করি।’’ কামিন্স যোগ করেছেন, ‘‘সতীর্থ হোক বা অন্য দলের খেলোয়াড়, এমন ঘটনা হলে সব সময়েই তার মঙ্গল কামনা করব।’’ একই সুর শোনা গিয়েছে কার্টিস প্যাটারসনের গলাতেও। তিনি বলেছেন, ‘‘আমরা প্রত্যেকেই ওই ঘটনায় ভয় পেয়ে গিয়েছিলাম।’’

রাতে করুণারত্নে টুইট করেছেন, ‘‘ক্যানবেরা হাসপাতালের চিকিৎসক এবং শ্রীলঙ্কা দলের সাপোর্ট স্টাফের কাছে আমি কৃতজ্ঞ। দ্রুত মাঠে ফেরার লড়াইও শুরু করে দিতে চাই।’’

দিমুথ ধাক্কা সামলে নিলেও দ্বিতীয় দিনের শেষে শ্রীলঙ্কা ভাল অবস্থায় নেই। ছয় উইকেটে ৫৩৪ রান তুলে প্রথম ইনিংসের সমাপ্তি ঘোষণা করে অস্ট্রেলিয়া। শুক্রবার জো বার্নস এবং ট্রাভিস হেড-এর পরে শনিবার অপরাজিত ১১৪ রানের ইনিংস উপহার দেন কার্টিস প্যাটারসন। এটিই ছিল তাঁর অভিষেক টেস্ট। জবাবে শ্রীলঙ্কা দ্বিতীয় দিনের শেষে ৩ উইকেটে ১২৩ রান তুলেছে। এখনও পর্যন্ত ৪১১ রানে পিছিয়ে শ্রীলঙ্কা।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন