• নিজস্ব প্রতিবেদন
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

মহাত্রয়ী নেই, উদয় নতুন তারার

জীবনটাই নিবেদিত এই জয়ের জন্য: থিম 

Thiem and Zverev
বন্ধন: নতুন চ্যাম্পিয়ন থিম (বাঁ-দিকে)। আলিঙ্গন বন্ধু জ়েরেভের। এএফপি

ছোটবেলা থেকেই স্বপ্ন ছিল টেনিসের গ্র্যান্ড স্ল্যাম জেতার। কিন্তু এর আগে তিন বার ফাইনালে উঠেও পারেননি গ্র্যান্ড স্ল্যাম ট্রফি হাতে তুলতে। রবিবার রাতে সেই স্বপ্ন পূরণ হল ডমিনিক থিমের। অস্ট্রিয়ার নতুন তারকা যুক্তরাষ্ট্র ওপেনের ফাইনালে দু’সেটে পিছিয়েও অসাধারণ প্রত্যাবর্তনে হারালেন আলেকজ়ান্ডার জ়েরেভকে। ফল তাঁর পক্ষে ২-৬, ৪-৬, ৬-৪, ৬-৩, ৭-৬ (৮-৬)। ‘‘সারা জীবনের সব চেয়ে বড় স্বপ্ন পূরণ হল। এখনও পর্যন্ত জীবনের পুরো সময়টা আমি নিবেদন করেছি এই মুহূর্তটা দেখব বলে। গ্র্যান্ড স্ল্যাম জিতছি,’’ বলেন থিম।  চার ঘণ্টা লড়াই করতে হয়েছে তাঁকে। এই স্বপ্ন পূরণের জন্য।   

যুক্তরাষ্ট্র ওপেনের ইতিহাসে ওপেন যুগে এই প্রথম কেউ ফাইনালে প্রথম দু’সেটে হেরেও ঘুরে দাঁড়ালেন। শুধু তাই নয়, ফ্লাশিং মেডোজের ফাইনালে পঞ্চম সেটের ফয়সালা হতে টাইব্রেক পর্যন্ত যাওয়ার ঘটনাও আগে কখনও দেখা যায়নি। ম্যাচ পয়েন্ট জেতার পরে এখনকার প্রথাগত ‘‌র‌্যাকেট ট্যাপ’ না করে বন্ধুকে জড়িয়ে ধরেন থিম। এমন ভাবে জ়েেরভ তাঁকে বুকে টেনে নিয়ে দাঁড়িয়েছিলেন, দেখে মনে হবে থিমই বুঝি ফাইনাল হেরে গিয়েছেন। ‘‘আমরা খুব ভাল বন্ধু। আর আমরা তো এর মধ্যে অনেক বারই করোনা পরীক্ষা করিয়েছি। তাই কোনও ভয় নেই,’’ বললেন থিম। যোগ করেন, ‘‘আজ দু’জনেই জিততে পারতাম। দু’জনেই জেতার মতো খেলেছিলাম।’’ 

প্রতিযোগিতার আগে জ়েরেভের বাবা ও দাদা করোনায় আক্রান্ত হয়েছিলেন। রানার্স ট্রফি নিয়ে কেঁদে ফেলেন তিনি। বলেন, ‘‘অনেক অভিনন্দন ডমিনিক তোমাকে। তুমি যদি আরও কয়েকটা ভুল করতে, তা হলে ট্রফিটা আমার হাতে থাকত।’’ থিমের জয় এল মহাত্রয়ীর অনুপস্থিতিতে। রজার-রাফা খেলেননি। মাঝপথে বহিষ্কৃত হন জোকোভিচ।  

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন