ইস্টবেঙ্গলের প্রাক্তন ফুটবলার আরশপ্রীত সিংহ গেলেন রিয়েল কাশ্মীরে। একাধিক পজিশনে খেলার দক্ষতা রয়েছে পঞ্জাবতনয়ের।

সেন্টার ব্যাক, ডিফেন্সিভ মিডফিল্ডারের পাশাপাশি লেফট ব্যাক পজিশনেও খেলতে পারেন তিনি। একাধিক পজিশনে খেলার দক্ষতার জন্যই তাঁকে এ বার সই করিয়েছে রিয়েল কাশ্মীর। ভূস্বর্গের ক্লাব ছেড়ে আভাস থাপা আগেই সই করেছেন আইএসএল-এর দল হায়দরাবাদে। আভাস লেফট ব্যাকে খেলতেন। আরশপ্রীতকেও আভাসের পজিশনেই খেলতে দেখা যেতে পারে এ বারের আই লিগে।

প্রাক্তন লাল-হলুদ অধিনায়ক গুরবিন্দর সিংহের ডাকে সাড়া দিয়ে ইস্টবেঙ্গলে খেলতে এসেছিলেন আরশপ্রীত। গুরবিন্দরের ভাই বলা হত তাঁকে। সেই সময়ে লাল-হলুদের সোনায় মোড়ানো দল। অনেক ভারতীয় ফুটবলারই প্রথম একাদশে জায়গা পেতেন না।

কলকাতা লিগে ইস্টবেঙ্গলের হয়ে নামলেও আইলিগের দলে আরশপ্রীতের জায়গা হয়নি। সন্তোষ ট্রফিতে সেরা ডিফেন্ডারের স্বীকৃতি পাওয়া ডিফেন্ডার ইস্টবেঙ্গল ছেড়ে চলে যান মিনার্ভা পঞ্জাবে। ২০১৭-১৮ মরসুমে আই লিগ চ্যাম্পিয়ন হয় মিনার্ভা। সেই চ্যাম্পিয়ন দলের সদস্য ছিলেন আরশপ্রীতও। পঞ্জাবের ক্লাবটি চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পরে অনেকেই অন্য ক্লাবে সই করেন। আরশপ্রীত থেকে যান মিনার্ভাতেই। এ বার তাঁর সঙ্গে চুক্তি শেষ হয়েছে পঞ্জাবের ক্লাবটির। পঞ্জাব ছেড়ে পঞ্জাবতনয় গেলেন কাশ্মীরে।