ইগর স্তিমাচের ইচ্ছাপূরণ হচ্ছে না। সুনীল ছেত্রীদের কোচ চেয়েছিলেন, ১৫ অক্টোবর বিশ্বকাপ যোগ্যতা অর্জনের ম্যাচের প্রস্তুতি হোক কলকাতাতেই। কিন্তু পুজোর মরসুমের জন্য তা সম্ভব হচ্ছে না। তবে কাল, বৃহস্পতিবার যুবভারতীর মাঠ পরিদর্শনে আসছেন ফেডারেশনের প্রতিনিধিরা।

আট বছর পরে যুবভারতীতে খেলতে নামবে কোনও ভারতীয় দল। সুনীল ছেত্রীদের ম্যাচ রয়েছে বাংলাদেশের সঙ্গে। ২০২২-এর বিশ্বকাপের সংগঠক দল শক্তিশালী কাতারের সঙ্গে গুরপ্রীত সিংহ সাঁধুরা ড্র করার পরে প্রাক বিশ্বকাপের ম্যাচ নিয়ে আগ্রহ রয়েছে। ভারতের ক্রোয়েশিয়ান কোচ ইগর ফেডারেশন কর্তাদের বলেছিলেন, ‘‘ভারতে আসার পর থেকেই কলকাতার কথা শুনছি। দেশের সবচেয়ে বেশি ফুটবলপ্রেমী মানুষ ওই শহরে থাকেন। সে জন্যই ওখানে প্রস্তুতি শিবির করতে চাই। তাতে জাতীয় দল নিয়ে সমর্থকদের আগ্রহ তৈরি হবে। ’’ দিল্লি থেকে ফোনে ফেডারেশনের এক কর্তা  বললেন, ‘‘আমরা কোচকে বুঝিয়েছি ওখানে তখন দুর্গাপুজো রয়েছে। ছুটির মরসুম। সাইয়ের মাঠ এবং যুবভারতীতে ওই সময় অনুশীলন করতে সমস্যা হতে পারে। হয়তো দেখা যাবে ড্রেসিংরুমের চাবি যাঁর কাছে, তিনি ছুটিতে রয়েছেন। তাই ঝুঁকি নিইনি।’’ এর পরেই কোচের সঙ্গে কথা বলে শিবির সরে যায় গুয়াহাটিতে। ২ অক্টোবর থেকে বাংলাদেশ ম্যাচের প্রস্তুতি শুরু হচ্ছে সুনীল ছেত্রীদের। ১২ বা ১৩ অক্টোবর দল নিয়ে শহরে আসতে পারেন স্তিমাচ। ভারতে আসার পর এই প্রথম জাতীয় কোচ শহরে আসবেন। 

জুলেনকে নামাতে পারেন কিবু: মিনি ডার্বিতে বৃহস্পতিবার অভিষেক হতে পারে জুলেন কলিনাসের। সালভা চামোরোর জায়গায় নতুন আসা স্পেনীয় ফুটবলারকে নামানোর কথা ভাবছেন কিবু ভিকুনা। এক সময় স্পেনে জোসেবা বেইতিয়ার ক্লাব রিয়াল সোসিদাদ-বি দলে একসঙ্গে খেলেছেন জুলেন। 

অনুশীলনেও তিনি নজর কেড়েছেন। বেইতিয়া তাঁর বন্ধু সম্পর্কে বলেছেন, ‘‘আমার চেয়ে ভাল ফুটবলার জুলেন। প্রচণ্ড গতি আছে।’’