মহেন্দ্র সিংহ ধোনির অনুপস্থিতি যে দলের উপর প্রভাব ফেলেছে তা জানিয়ে দিলেন স্টিভন ফ্লেমিং। শেষ ম্যাচে ধোনি না থাকায় নেতৃত্ব দেন সুরেশ রায়না। ফলে সানরাইজার্স হায়দরাবাদের বিরুদ্ধে ছয় উইকেটে হারে চেন্নাই। রবিবার রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোরের বিরুদ্ধে ‘মাহি’ খেলবেন কি না তা বোঝা যাবে টসের সময়। কিন্তু শনিবার চিন্নাস্বামী স্টেডিয়ামে অনুশীলন করেন ধোনি। কিন্তু তিনি খেলবেন কি না তা নিশ্চিত করতে পারেননি ফ্লেমিং।

ম্যাচের আগের দিন সিএসকে কোচ ফ্লেমিং বলেন, ‘‘আজ অনুশীলনের পরে ধোনি ও ব্র্যাভোর ফিটনেস পরীক্ষা হবে। সেখানেই দেখে নেওয়া হবে ওরা ম্যাচ ফিট কি না।’’ সঙ্গে যোগ করেন, ‘‘গত ম্যাচে ধোনি না থাকায় অসুবিধা হয়নি তা বলা যাবে না। দলের মূল ক্রিকেটার যদি না খেলে, তা হলে অবশ্যই দলে তার প্রভাব পড়বে। এমনকি নেতৃত্বেও প্রভাব পড়েছে। অনেক সিদ্ধান্ত বদলাতে হয়। তবুও দল খারাপ খেলেনি। দল ভাল খেললেও আমরা জিততে পারিনি।’’

চেন্নাই সব সময় চেষ্টা করে, ক্রিকেটারদের বেশি সুযোগ দিতে। কোনও ম্যাচ খারাপ খেললেও অযথা দল থেকে বাদ দেন না। ফ্লেমিং বলেছেন, ‘‘কোনও ম্যাচ খারাপ গেলে আমরা বসিয়ে দেওয়ার পক্ষপাতি নই। সব সময় চেষ্টা করা হয় প্রত্যেকে যেন তাদের যোগ্য সুযোগ পায়। কারণ, ওদের কাঁধে অনেক বড় দায়িত্ব। তাই দুই ইনিংস খারাপ গেলেও আমরা খেলানোর চেষ্টা করি।’’

রবিবার চিন্নাস্বামী স্টেডিয়ামে বিরাটদের বিরুদ্ধে ম্যাচ আরসিবি-র। যেখানে পিচ সাধারণত ব্যাটিং-সহায়ক। তাই দলেও পরিবর্তন করা হতে পারে। ফ্লেমিং বলছিলেন, ‘‘ঘরের মাঠে আমরা স্থায়ী দল খেলাতে পারি। যেখানে উইকেট স্পিন-সহায়ক। কিন্তু চিন্নাস্বামীতে অতিরিক্ত ব্যাটসম্যান ও পেসার খেলানো হতে পারে। আমরা এ ভাবেই দল গড়ার চেষ্টা করি।’’

ফ্লেমিং মনে করছেন, চিন্নাস্বামীর পিচে বড় রানের খেলা হতে চলেছে। বলেন, ‘‘এই পিচে ব্যাটসম্যানের সঙ্গে চাপে থাকবে বোলাররা। কারণ, চিন্নাস্বামীতে রান ওঠে। ২০০ বনাম ২০০ রানের খেলা হবে কি না বোঝা যাচ্ছে না। তবে ভাল খেলা হবে।’’

এ দিকে, শুক্রবার ইডেনে কলকাতা নাইট রাইডার্সকে হারানোর পরে ফুরফুরে মেজাজে রয়েছেন রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোর দলের অধিনায়ক বিরাট কোহালি। তিনি বলেছেন, ‘‘এবি-র না থাকা বড় চ্যালেঞ্জ ছিল। আমাকে শুরু থেকে সতর্ক থাকতে হয়েছিল। তা ছাড়া আমি ওকে বলেছিলাম, যদি ম্যাচটা জিতি তা হলে তোমাকে আলিঙ্গন করব। ওকে দেওয়া প্রতিশ্রুতি রাখতে পেরে খুব হাল্কা অনুভব করছি।’’ নিজের ইনিংস নিয়ে তাঁর বিশ্লেষণ,  ‘‘একটা বড় রানের দরকার ছিল। ইডেনের উইকেটে ব্যাট করা খুব সহজ ছিল না। ওই সময়ে বোলারদের পাল্টা চাপে ফেলা খুবই দরকারি ছিল। মইন সেই দায়িত্ব নিজের কাঁধে তুলে নেয়। আমার চাপটা সরে যায়।’’

আইপিএলে আজ: রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোর বনাম চেন্নাই সুপার কিংস (রাত ৮.০০)। স্টার স্পোর্টস ওয়ান চ্যানেলে।