• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

ফেডারেশনের দ্বারস্থ জবি

Jobby Justin
লড়াই: আইএফএ-র সিদ্ধান্ত মানছেন না জবি। ফাইল চিত্র

জবি জাস্টিনের সই বিতর্কে নতুন মোড়। সর্বভারতীয় ফুটবল ফেডারেশন ও ফুটবলারদের সংস্থার দ্বারস্থ হলেন কেরল স্ট্রাইকার।

চব্বিশ ঘণ্টা আগেই বাংলার ফুটবলের নিয়ামক সংস্থা আইএফএ-র প্লেয়ার্স স্টেটাস কমিটির সদস্যেরা বৈঠকের পরে জানিয়ে দেন, পরের মরসুমেও ইস্টবেঙ্গলে খেলতে হবে জবিকে। কারণ, তিনি লাল-হলুদে খেলতে চেয়ে চিঠি দেওয়ার পরে এটিকে-তে সই করেন। জবি অবশ্য প্রথম থেকেই দাবি করে আসছেন, ইস্টবেঙ্গল যে চিঠি দেখাচ্ছে তাতে তিনি সই করেননি। চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন এটিকের সঙ্গে। লাল-হলুদ শিবিরের তরফে সর্বভারতীয় ফুটবল ফেডারেশন ও আইএফএ-তে অভিযোগ জানানো হয়। এর পরেই তদন্তে নামে বাংলার ফুটবল নিয়ামক সংস্থা। সাহায্য নেওয়া হয় হস্তলেখা বিশেষজ্ঞের। দু’মাস ধরে তদন্ত চলার পরে শনিবারই হস্তলেখা বিশেষজ্ঞের রিপোর্ট খোলা হয় স্টেটাস কমিটির সভায়। আইএফএ সচিব জানান, রিপোর্টে লেখা রয়েছে, চিঠিতে সই রয়েছে জবিরই। ফলে তাঁকে লাল-হলুদ জার্সি গায়েই খেলতে হবে।

আইএফএ-র সিদ্ধান্ত যে মানছেন না, তা রবিবারই স্পষ্ট করে দিয়েছেন জবি। তিনি বলেছেন, ‘‘আমি আগেও বলেছি, আইএসএলে খেলার জন্য এটিকের তিন বছরের চুক্তিতে সই করেছি। আমার আগের ক্লাব ইস্টবেঙ্গল দাবি করছে, আমি আরও দু’বছর খেলতে চাই বলে চিঠি দিয়েছি। যা সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন। আমি শুধুমাত্র তিন বছরের জন্য এটিকের চুক্তিপত্রে সই করেছি।’’ তিনি যোগ করেছেন, ‘‘এই পরিস্থিতিতে সর্বভারতীয় ফুটবল ফেডারেশনের কাছে আবেদন, দ্রুত সমস্যার সমাধান করুন।’’ সোশ্যাল মিডিয়াতেও নিজের বক্তব্য জানান প্রতিশ্রুতিমান স্ট্রাইকার। ফেডারেশন সূত্রে খবর, জবির বিষয়টি শৃঙ্খলারক্ষা কমিটির কাছে পাঠানো হবে। 

এবার শুধু খবর পড়া নয়, খবর দেখাও।সাবস্ক্রাইব করুনআমাদেরYouTube Channel - এ।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন