• সংবাদ সংস্থা 
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

শাস্তি ঠেকাতে আমাদের ড্রেসিংরুমে এসেছিল সৌরভ, দাবি সঙ্গাকারার

Sourav and Sangakkara
সঙ্গকারা ও সৌরভ। ২০০২ সালের চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির ফাইনালের প্রসঙ্গ টানলেন শ্রীলঙ্কার প্রাক্তন অধিনায়ক। —ফাইল চিত্র।

বিপক্ষের চোখে চোখ রেখে যে লড়তে জানে ভারত, তা সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের সময়েই দেখা গিয়েছিল। তাঁর নেতৃত্বে ভয়ডরহীন ক্রিকেট খেলতে শিখেছিল ভারত। বাইশ গজে আগ্রাসী হতে গিয়ে শাস্তি পাওয়ার মতো অবস্থায় পড়তে হয়েছিল সৌরভকে। সে যাত্রায় প্রাক্তন ভারত অধিনায়ককে রক্ষা করেছিল শ্রীলঙ্কা।

১৮ বছর আগের সেই ঘটনার কথা একটি খেলার চ্যানেলের অনুষ্ঠানে বলেছেন শ্রীলঙ্কার প্রাক্তন অধিনায়ক কুমার সঙ্গকারা। তিনি বলেছেন, “একটা ম্যাচে রাসেল আর্নল্ডের সঙ্গে ঝামেলায় জড়িয়ে পড়েছিল সৌরভ। আম্পায়ারও সৌরভের বিরুদ্ধে অভিযোগ করেছিল।”

যে ম্যাচের কথা উল্লেখ করেন সঙ্গকারা, সেটি ২০০২ সালের চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির ফাইনাল। সেই ম্যাচে রাসেল আর্নল্ড রান নেওয়ার সময়ে উইকেটের মাঝখানে চলে যাচ্ছিলেন। শ্রীলঙ্কার প্রাক্তন ক্রিকেটারের এ ভাবে উইকেটের ভিতরে ঢুকে পড়া ভাল ভাবে নেননি সৌরভ। তাঁর সঙ্গে কথা কাটাকাটি শুরু হয়ে আর্নল্ডের। দুই ফিল্ড আম্পায়ার পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করেন। ম্যাচ রেফারির কাছে পুরো বিষয়টিই জানান দুই আম্পায়ার। শাস্তির মুখে পড়তে পারেন, এমন আশঙ্কা করেই শ্রীলঙ্কার ড্রেসিং রুমে যান ভারতের প্রাক্তন অধিনায়ক।

আরও পড়ুন: ‘নতুন ক্লাবে ডাক পাব কি না জানি না, তবে মোহনবাগান থাকবে হৃদয়ে’

সেই ঘটনা প্রসঙ্গে সঙ্গকারা বলেন, ‘‘সৌরভ আমাদের ড্রেসিং রুমে এসেছিল। বলেছিল, ঘটনাটা বেশি দূর গড়ালে ওকে শাস্তি পেতে হতে পারে। আমরা সৌরভকে জানাই চিন্তা করার দরকার নেই।” সৌরভের কোনও শাস্তি হয়নি। শ্রীলঙ্কার ক্রিকেটাররাও ঘটনাটা নিয়ে বেশি দূর অগ্রসর হয়নি। সৌরভের জন্মদিনে রাসেল আর্নল্ড শুভেচ্ছা জানিয়ে ১৮ বছর আগের সেই ঘটনার ভিডিয়ো পোস্ট করেন।

তিনি লেখেন, ‘‘মাঠের ভিতরে দারুণ এক চরিত্র সৌরভ। নিজের দেশকে নিয়ে অত্যন্ত প্যাশনেট। প্রতিপক্ষকে এক ইঞ্চি জমি ছাড়তে রাজি নয়। সেই ঘটনার দিকে পিছন ফিরে তাকালে  আমার বেশ ভালই লাগে। আশা করি তোমাদের মনে আছে তা।”

 

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন