ক্রিস এভার্টের প্রাক্তন স্বামী জন লয়েড না হয় ব্রিটিশ টেনিস তারকা। কিন্তু মার্কিন কিংবদন্তি জন ম্যাকেনরোও লয়েডের সঙ্গে একমত। শুক্রবার রজার ফেডেরারের বিরুদ্ধে অ্যান্ডি মারে ফেভারিট।

‘‘এ বার টুর্নামেন্টের শুরুতেই আমি অ্যান্ডিকে সম্ভাব্য চ্যাম্পিয়ন বেছেছিলাম। এবং এখনও আমার মত বদলের কোনও কারণ খুঁজে পাচ্ছি না,’’ বলেছেন তিন বারের উইম্বলডন জয়ী ম্যাকেনরো। লয়েড আবার মনে করছেন, এই ম্যাচের টিকিট যাঁদের হাতে রয়েছে তারা রীতিমতো ভাগ্যবান। কারণ এটা একটা অনবদ্য ম্যাচ হতে চলেছে।

রজার বনাম অ্যান্ডি কতটা অনবদ্য ম্যাচ হবে সেটা সময়ই বলবে। তবে দুই মহারথীর শুক্রবারের ম্যাচ তাঁদের আগের ২৩টা লড়াইয়ের চেয়ে একটা ব্যাপারে যে অন্য রকম সেটা প্রথম পয়েন্টের আগেই বলে ফেলা যায়। আর সেই ‘অন্য রকম’টাই ২০১৫ উইম্বলডন-এর মহাসেমিফাইনালের ভাগ্য গড়ে দিতে পারে।

সেটা কী? ফেডেরার আর মারে—দু’জনের কোচিং টিমেই দুই অসাধারণ প্রাক্তন তারকার উপস্থিতি। টিম ফেডেরার-এ স্তেফান এডবার্গ। টিম মারে-তে জোনাস বর্কমান।

দুই সুইডিশ প্রাক্তন তারকার খেলার স্টাইল চলতি উইম্বলডনে তাদের মেগাশিষ্যদের র‌্যাকেটে প্রবল ভাবে স্পষ্ট। আট-নয়ের দশকে দু’বারের উইম্বলডন চ্যাম্পিয়ন এডবার্গ তাঁর জমানায় নিঁখুত সার্ভ-ভলি প্লেয়ার ছিলেন। এবং তর্কাতীত ভাবে সর্বকালের অন্যতম সেরা সার্ভ-ভলি প্লেয়ার হিসেবে স্বীকৃত। বরিস বেকার বা পিট সাম্প্রাসের মতো বুম-বুম সার্ভিস এডবার্গের না থাকলেও সেকেন্ড সার্ভেরও তীক্ষ্মতা ছিল ভয়ঙ্কর। ফেডেরারের এ বার উইম্বলডনে সার্ভিস-মেশিন মোড-এ থাকা এবং আক্রণাত্মক ভলির মাত্রা বেড়ে যাওয়ার পিছনে এডবার্গের টোটকার কার্যকারিতা অবশ্যম্ভাবী।

বর্কমান আবার একবিংশ শতকের গোড়ায় টানা তিন বারের উইম্বল়ডন ডাবলস চ্যাম্পিয়ন। ঘাসের কোর্টে রিফ্লেক্স, বিশেষ করে নেটের সামনে মারেকে এ বার দু’বছর আগে উইম্বলডন চ্যাম্পিয়ন হওয়ার সময়ের চেয়েও অনেক বেশি দক্ষ দেখাচ্ছে। যার পিছনে বর্কমানের টিপসই আসল কারণ বলে টেনিসপণ্ডিতদের ধারণা।

দুই সুইডিশ মেন্টরের টোটকা এই মেগাম্যাচের আগে দুই মেগাপ্লেয়ারকে মানসিক ভাবেও অদ্ভুত ঠান্ডা রেখেছে যেন! দু’জনই পরস্পরের ক্ষমতার উপর বিরাট শ্রদ্ধাশীল। সেমিফাইনালের প্রাক্কালে মারে বলেছেন, ‘‘রজারের ভেতর এখনও অন্তত চার বছর শীর্য টেনিসে সাফল্যের সঙ্গে বিচরণ করার ক্ষমতা রয়েছে।’’ পাল্টা মারে সম্পর্কে ফেডেরারের শংসাপত্র, ‘‘টেনিসে পিঠের ব্যথার মতো ভয়ঙ্কর বিপদ সামলে অ্যান্ডি যে ভাবে আবার নিজের সেরা ফর্মে ফিরে এসেছে সেটা অবিশ্বাস্য!’’

যদিও উইম্বলডনের সেন্টার কোর্ট যাঁর কাছে নিজের দ্বিতীয় ঘর সেই ফেডেরারকে হারাতে মারেকে সেরা টেনিস খেলতে হবে বলেই বিশেষজ্ঞদের মত। যাঁদের ভেতর জন ম্যাকেনরো-ও আছেন!

আজ টিভিতে

(স্টার স্পোর্টস ২)

উইম্বলডনে পুরুষদের সিঙ্গলস সেমিফাইনাল শুরু বিকেল সাড়ে পাঁচটায়।
ফেডেরার বনাম মারে দ্বিতীয় ম্যাচ।