• নিজস্ব প্রতিবেদন
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

হাফিজ়কে ফের ‘পজিটিভ’ করে দিল পাক বোর্ড

Mohammad Hafeez
নজরে: হাফিজ়ের করোনা আক্রান্ত হওয়া নিয়ে নাটক চলছেই। ফাইল চিত্র

পজিটিভ, নেগেটিভ এবং এখন আবার পজিটিভ! পাক অলরাউন্ডার মহম্মদ হাফিজ়ের করোনা সংক্রমণ নিয়ে রহস্য ক্রমশ ঘনীভূত হচ্ছে। এবং তারই সঙ্গে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের ভূমিকা নিয়েও উঠছে প্রশ্ন। আগামী রবিবার ইংল্যান্ড রওনা হওয়ার কথা পাকিস্তান দলের। শেষ পর্যন্ত এই মারণ ভাইরাস বাবর আজমদের পথের কাঁটা হয়ে দাঁড়ায় কি না, সেটাই এখন দেখার।

 গত মঙ্গলবার প্রথম দফার করোনা পরীক্ষার পরে পিসিবি জানিয়েছিল, মোট দশজন ক্রিকেটারের শরীরে করোনাভাইরাস পজিটিভ পাওয়া গিয়েছে। যার মধ্যে ছিলেন হাফিজ়ও। তার পরের দিনই এই পাক অলরাউন্ডার টুইট করে জানান, তিনি ব্যক্তিগত ভাবে করোনার পরীক্ষা করিয়েছিলেন এবং তাঁর ফল নেগেটিভ এসেছে। তিনি সেই মেডিক্যাল রিপোর্টও টুইটার হ্যান্ডলে পোস্ট করেন। যা নিয়ে বোর্ড অস্বস্তিতে পড়ে গিয়েছিল।

শুক্রবার পিসিবি-র একটি সূত্র জানিয়েছে, শওকত খানুম মেমোরিয়াল হাসপাতাল, যেখানে ক্রিকেটারদের প্রথম দফার করোনা পরীক্ষা হয়েছিল, সেখানেই হাফিজের থুতুর নমুনা দ্বিতীয়বার পরীক্ষা করা হয়েছে এবং যথারীতি তার ফল পজিটিভ এসেছে। ওই সূত্রটি বলেছে, “বোর্ড খুবই জটিল পরিস্থিতির মধ্যে পড়ে গিয়েছে। এ দিন যে দশ জন ক্রিকেটারের থুতুর নমুনা নতুন ভাবে নেওয়া হয়েছে, তার পরীক্ষার ফল কী আসে, সেটাই এখন দেখার। শনিবার সেই পরীক্ষার ফল জানাবে বোর্ড।”

শোনা গিয়েছে, শনিবারের ফল ঘোষণা করার সময় যদি জানা যায়, হাফিজ়ের পরীক্ষার ফল পজিটিভ এসেছে, তা হলে বোর্ড তাঁর বিরুদ্ধে শৃঙ্খলাভঙ্গের অভিযোগ আনতে পারে। বোর্ড সে ক্ষেত্রে যুক্তি দেবে, নিভৃতবাসে যাওয়ার পরিবর্তে হাফিজ় নিজের উদ্যোগে নতুন ভাবে করোনার পরীক্ষা করিয়ে বোর্ডের নির্দেশকেই অমান্য করেছেন। নামপ্রকাশে অনিচ্ছুক হাফিজ়ের এক ঘনিষ্ঠ সংবাদ সংস্থা পিটিআইকে আবার বলেছেন, “প্রথম বার করোনার ফল পজিটিভ আসায় হাফিজ় খুব উদ্বিগ্ন হয়ে পড়ে। তাই নিজের উদ্যোগে দ্বিতীয়বার করোনার পরীক্ষা করায়। বোর্ডকে অস্বস্তিতে ফেলার কোনও উদ্দেশ্যই ওর ছিল না।” যদিও পাক বোর্ডের সিইও ওয়াসিম খান জোর গলায় দাবি করেছেন, নির্ধারিত দিনেই দল রওনা হবে ইংল্যান্ডে। তিনি জানান, যে দশজন ক্রিকেটারের শরীরে করোনা ধরা পড়েছে, তার মধ্যে সাত ক্রিকেটারই খেলবেন সীমিত ওভারের ক্রিকেটে। যে টি-টোয়েন্টি সিরিজ হবে অগস্ট মাসের তৃতীয় সপ্তাহে। লাহৌরে বিশেষ জৈব সুরক্ষিত পরিবেশে ক্রিকেটারদের আবার করোনার পরীক্ষা হবে। যাঁদের পরীক্ষার ফল নেগেটিভ আসবে, তাঁরা রবিবার ইংল্যান্ড রওনা হয়ে যাবেন। আর যাঁদের দ্বিতীয় পরীক্ষার ফল পজিটিভ হবে, তাঁদের পরিবর্তে রিজার্ভ দল থেকে ক্রিকেটারদের নির্বাচিত করে পাঠানো হবে ইংল্যান্ড সফরে। সংক্রমিত ক্রিকেটারদের যেতে হবে নিভৃতবাসে।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন