মিতালি রাজকে নিয়ে বিতর্ক যেন শেষই হচ্ছে না। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ থেকে ভারতের বিদায়ের পরে মেয়েদের ক্রিকেটে ঝড় উঠেছে মিতালিকে নিয়ে। কেন তাঁকে সেমিফাইনালে খেলানো হল না, এই নিয়ে প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে। 

রবিবার এই বিতর্ক অন্য মাত্রা পেল। সংবাদ সংস্থা জানিয়েছে, কমিটি অফ অ্যাডমিনিস্ট্রেটর্স ডেকে পাঠাতে পারে ভারতীয় অধিনায়ক হরমনপ্রীত কৌর এবং মিতালিকে। ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের এক কর্তা সংবাদ সংস্থাকে জানিয়েছেন, নিজের বক্তব্য লিখিত ভাবে বোর্ডের জিএম (ক্রিকেট অপারেশনস) সাবা করিমকে জানাতে পারেন মিতালি। কারণ সাবাই এখন মহিলা ক্রিকেটের দায়িত্বে আছেন। 

বোর্ডের ওই কর্তা বলেছেন, ‘‘সিওএ সম্ভবত হরমনপ্রীত এবং মিতালির সঙ্গে আলাদা আলাদা ভাবে কথা বলবে। কথা বলা হবে কোচ রমেশ পওয়ার এবং দলের ম্যানেজার ও ওয়েস্ট ইন্ডিজে থাকা নির্বাচকের সঙ্গেও।’’ মিতালি বাদ যাওয়ার পরে অনেকেই কাঠগড়ায় তোলেন হরমনপ্রীতকে। মিতালির ম্যানেজার টুইট করে হরমনপ্রীতকে ‘মিথ্যাবাদী’ বলেন। 

সিওএ প্রধান বিনোদ রাই ব্যাপারটা পছন্দ করেননি। সংবাদ সংস্থাকে এ দিন রাই বলেছেন, ‘‘ভারতীয় মহিলা ক্রিকেটারদের সঙ্গে জড়িয়ে থাকা কেউ কেউ এমন মন্তব্য করেছেন, যা নিয়ে প্রশ্ন থাকছে। প্রচারমাধ্যমে এমন মন্তব্য করার কোনও প্রয়োজন ছিল না।’’

এ দিকে, বিশ্বকাপে পারফরম্যান্স দেখে আইসিসি মেয়েদের যে বিশ্ব একাদশ গড়েছে, তার অধিনায়ক বাছা হয়েছে হরমনপ্রীতকে। ভারতের ওপেনার স্মৃতি মান্ধানা ও লেগ স্পিনার পুনম যাদবও এই দলে রয়েছেন।