এশিয়ান কুস্তি চ্যাম্পিয়নশিপে ভারতকে প্রথম সোনা এনে দিলেন বজরং পুনিয়া। পিছিয়ে পড়েও ঘুরে দাঁড়িয়ে ম্যাচ জিতে নিলেন তিনি। ৬৫ কেজি বিভাগে হারালেন কোরিয়ার লি সিয়ং চুলকে। ৬-২এ জিতে ভারতের পতাকা নিয়ে ভিক্ট্রিল্যাপ দিতেও দেখা যায় তাঁকে। যদিও শুরুটা ভাল করতে পারেননি তিনি। খেলার বিরতিতে ০-২এ পিছিয়ে ছিলেন তিনি। কিন্তু দ্বিতীয়ার্ধে ঘুরে দাঁড়ান। তার পর আর কোরিয়ার প্রতিপক্ষকে পয়েন্ট পেতে দেননি ভারতের সোনা জয়ী কুস্তিগীর। এদিন গ্যালারিতে উপস্থিত ছিলেন যোগেশ্বর দত্ত। পুনিয়ার সোনা জয়ের পর যোগেশ্বর বলেন, ‘‘আমি ওকে বলেছিলাম টানা আক্রমণাত্মক খেলতে। রক্ষ্মণাত্মক না হতে। যেটা ওর কাজে লেগেছে। এশিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপে সোনা জয়টা সত্যিই বড় ব্যাপার।’’

আরও খবর: কোহালিকে উপদেশে ‘না’ স্মিথের

শনিবার নয়া দিল্লিতে বজরং পুনিয়ার সোনা জয়ের পাশাপাশি ভারতকে রুপো এনে দেন সরিতা। ফাইনালে কিরঘিজস্তানের আইসুলু তাইনবেকোভার কাছে ০-৬এ হেরে রুপোতেই সন্তুষ্ট থাকতে হল সরিতাকে। রুপো জিতে সরিতা বলেন, ‘‘দু’কিলো কমিয়ে প্রতিযোগিতায় নামাটা খুব একটা কঠিন ছিল না। এটা খুব স্বাভাবিক ২-৩ কিলোগ্রাম এদিক ওদিক হওয়া। এখন আনার ওয়েট ৫৮ কেজি। আমি নিজের খেলাটা ধরে রেখে বিশ্ব চ্যাম্পিয়নশিপের যোগ্যতা অর্জন করতে তৈরি হচ্ছি।’’ যদিও ফাইনালে দাঁড়াতেই পারেননি তিনি।