• নিজস্ব প্রতিবেদন
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

প্রাক্তনদের গুরুত্ব দাও, রাজ্যদের বললেন দ্রাবিড়

Rahul Dravid
পরামর্শ: শক্তি ও দক্ষতা বৃদ্ধির অনুশীলনে ভারসাম্য চান দ্রাবিড়।

রাজ্য ক্রিকেট সংস্থাগুলোতে প্রাক্তন ক্রিকেটারদের অভিজ্ঞতা কাজে লাগাতে পরামর্শ দিলেন প্রাক্তন ভারতীয় অধিনায়ক ও জাতীয় ক্রিকেট অ্যাকাডেমির প্রধান রাহুল দ্রাবিড়। বুধবার ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড আয়োজিত এক ওয়েবিনারে এই পরামর্শ দেন তিনি।

ইন্টারনেটের মাধ্যমে হওয়া এই আলোচনাসভায় দ্রাবিড় ছাড়াও অংশ নিয়েছিলেন বিভিন্ন রাজ্য সংস্থার সচিব ও ক্রিকেট সংক্রান্ত বিভাগের প্রধানেরা। এই মুহূর্তে গোটা বিশ্ব করোনা সংক্রমণে জর্জরিত। তাই ক্রিকেটারদের শারীরচর্চা ও সে সংক্রান্ত তথ্য সহযোগে গুরুত্বপূর্ণ বক্তব্য রাখেন দ্রাবিড়। আলোচনায় যোগ দেওয়া এক রাজ্য সংস্থার সচিব সংবাদসংস্থা পিটিআই-কে বলেন, ‍‘‍‘রাহুল আলোচনায় একবারও বলেননি যে, প্রাক্তন ক্রিকেটারদের রাজ্য সংস্থায় অন্তর্ভুক্ত করা বাধ্যতামূলক হোক। ওঁর পরামর্শ, প্রাক্তন ক্রিকেটারদের অনেকেই খেলার ব্যাপারে অভিজ্ঞ। সেই অভিজ্ঞতা কাজে লাগানো যেতে পারে।’’ যোগ করেন, ‍‘‍‘রাহুলের মত অনুযায়ী, যদি রাজ্য সংস্থায় এ সব প্রাক্তন ক্রিকেটারদের যোগ করা হয়, তা হলে তাঁদের বিশেষ জ্ঞান কাজে লাগানো যাবে ক্রিকেটের প্রসারে। তাঁদের অভিজ্ঞতা নষ্ট হবে না।’’

আলোচনায় ক্রিকেটারদের অনুশীলনের প্রসঙ্গ উঠলে দ্রাবিড় ও জাতীয় অ্যাকাডেমির অন্যরা বলেন, ‘‍‘জাতীয় ক্রিকেট অ্যাকাডেমি দু’টি ধাপে ক্রিকেট অনুশীলনের প্রক্রিয়া ফেরাতে চায়। এক, ইন্টারনেটের মাধ্যমে। দুই, মাঠে শারীরর্চচা করে।’’ তাঁরা যোগ করেন, ‍‘‍‘বর্তমান পরিস্থিতিতে রাজ্য সংস্থাগুলোর পক্ষে সম্ভব নয়, ২৫-৩০ জন ক্রিকেটারকে নিয়ে একসঙ্গে অনুশীলন করানো। সে ক্ষেত্রে ইন্টারনেটের মাধ্যমে ‍‘ভার্চুয়াল ট্রেনিং’ হোক ট্রেনার ও ফিজিয়োথেরাপিস্টদের তত্ত্বাবধানে। সময় মতো কয়েক জনকে ধাপে ধাপে ডেকে নিয়ে মাঠে শারীরচর্চা করানো যেতে পারে।’’ আউটডোর ট্রেনিংয়ের ক্ষেত্রে ছোট ছোট গ্রুপ করে প্রশিক্ষণ শুরু করার পরামর্শই রাজ্য ক্রিকেট সংস্থাগুলিকে দিয়েছে বোর্ড।

শক্তি ও দক্ষতায় শান দেওয়ার প্রসঙ্গে অ্যাকাডেমির অন্য কর্তারা বলেন, ‍‘‍‘এই দুই ধরনের অনুশীলনে ভারসাম্য রাখা জরুরি। একটি করার সময়ে অন্যটির অনুশীলন বেশি করা যাবে না। অর্থাৎ শক্তি বাড়ানোর অনুশীলনের সময় দক্ষতা বাড়ানোর প্রস্তুতি নেওয়া যাবে না। রাজ্য সংস্থায় দায়িত্বপ্রাপ্ত ফিজিয়োদের কাছ থেকে প্রাপ্ত তথ্যের ভিত্তিতেই এটা নিখুঁত ভাবে হতে পারে। যা ক্রিকেচারদের পুনর্বাসনেও সাহায্য করবে।’’ এ বার ক্রিকেটে ফেরার জন্য বোর্ড কী বার্তা দেয়, সেটাই এখন দেখার। 

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন