• নিজস্ব প্রতিবেদন
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

ইতিহাস লিখতে আজ মুখোমুখি নোভাক-রজার

Joker and Fedex
ইতিহাস তৈরির অপেক্ষায় জোকোভিচ ও ফেডেরার।

Advertisement

গত ষোলো বছরে দু’বার বাদ দিলে উইম্বলডনের শেষ রবিবার অর্থাৎ ফাইনালে তাঁদের দু’জনের মধ্যে অন্তত এক জনকে দেখা গিয়েছেই। তাঁরা— রজার ফেডেরার এবং নোভাক জোকোভিচ। যে দু’জনের মিলিত উইম্বলডন ট্রফির সংখ্যা ১২। আরও এক রবিবার তাঁদের লড়াই দেখার আশায় এ বার অধীর অপেক্ষায় টেনিসপ্রেমীরা।

জোকোভিচ বলেছেন, ‘‘ছোটবেলায় টেনিস র‌্যাকেট হাতে নিয়ে স্বপ্ন দেখতাম উইম্বলডনের ফাইনালে খেলব। এত পরিশ্রম করেছি শুধু এই দিনটা দেখব বলে, এই জায়গায় আসতে পারব বলে।’’ বিশ্বের এক নম্বর আরও বলেছেন, ‘‘ফাইনালে আমার সামনে আরও একটা ট্রফি জেতার জন্য লড়াই করার সুযোগ রয়েছে। নেটের ও পারে যে-ই থাকুক, যা-ই ঘটুক, আমি নিজের সর্বস্ব উজাড় করে দেব।’’

ফেডেরারের বিরুদ্ধে মুখোমুখি লড়াইয়ে জোকোভিচ এগিয়ে রয়েছেন ২৫-২২। টেনিসের ওপেন যুগের রেষারেষিতে সবচেয়ে এগিয়ে জোকোভিচ বনাম নাদালের লড়াই (৫৪ ম্যাচ)। ঠিক তার পরেই আছে ফেডেরার-জোকোভিচের দ্বৈরথ। তবে শেষ চার বার ফেডেরারের বিরুদ্ধে জিতেছেন জোকোভিচই। 

এত বার মুখোমুখি হয়েছেন বলেই দু’জনেরই একে অপরের শক্তি এবং দুর্বলতা খুব ভাল করে জানা। ‘‘যখনই কারও বিরুদ্ধে ১৪-১৫ বার খেলা হয়ে যায়, তার পরে আর অজানা কিছু থাকে না। তখন দু’জনই জানে কে কোথায় বলটা রাখতে ভালবাসে। মনে হয় না এই ম্যাচটার আগে প্র্যাক্টিস করার মতো আর কিছু বাকি রয়েছে। এটা অনেকটা স্কুলের মতো। পরীক্ষার দিন প্রচুর বই কেউ পড়ে না। অত সময় থাকে না। অনেক আগেই পড়াটা সেরে রাখতে হয়,’’ বলেছেন ফেডেরার। দু’জনের খেলার ধরন এবং ব্যক্তিত্ব আলাদা হলেও রবিবারের ফাইনালে ওঠার পথ কিন্তু একই রকম। দু’জনেই মাত্র দুটো সেট হারিয়েছেন গত ছ’টা ম্যাচে। একটা সেট প্রথম সপ্তাহে, আর একটা সেমিফাইনালে।

ফেডেরার আর জোকোভিচ উইম্বলডনে গত দশ বছরে এতটাই দাপট দেখিয়েছেন যে অনেকেই ভুলে গিয়েছেন তাঁরা এমন একটা বয়সে খেলছেন যখন তাঁদের সমকালীন অনেকেই পিছিয়ে পড়েছেন অথবা অবসর নিয়ে নিয়েছেন। ৩২ বছর বয়সি জোকোভিচ তিরিশে পড়ার পরে চতুর্থ গ্র্যান্ড স্ল্যাম জয়ের দৌড়ে আছেন। যে কৃতিত্ব ওপেন যুগে শুধু করে দেখিয়েছেন ফেডেরার, নাদাল এবং রড লেভার। রবিবার জোকোভিচ ফেডেরারকে হারালে ওপেন যুগে তিরিশের বেশি বয়সি খেলোয়াড় হিসেবে প্রথম বার টানা দু’বার উইম্বলডন জিতবেন।  

তবে জোকোভিচ জানেন ইতিহাস গড়তে তাঁকেও ইতিহাসকে হারাতে হবে। আট বারের উইম্বলডন চ্যাম্পিয়ন ফেডেরারকে অনেকেই বলেন ঘাসের কোর্টে সর্বকালের সেরা খেলোয়াড়। ‘‘আমরা সবাই জানি ফেডেরার বিশেষ করে ঘাসের কোর্টে কী রকম দুরন্ত খেলে। ফেডেরার দ্রুত গতিতে খেলতে পছন্দ করে। প্রতিপক্ষকে ঘুরে দাঁড়ানোর সুযোগ দেয় না। সর্বক্ষণ একটা চাপের মধ্যে থাকতে হয় বিপক্ষকে,’’ বলেছেন জোকোভিচ। ফেডেরার আবার বলেছেন, ‘‘এখনই পার্টি করার বা আবেগে ভেসে যাওয়ার মানে হয় না। ভাগ্যক্রমে হোক বা দুর্ভাগ্যক্রমে, আরও একটা ম্যাচ খেলতে হবে। সব ভুলে মনসংযোগ করতে হবে ফাইনালে।’’

দেখার বিশ্বের এক নম্বর জোকোভিচ নতুন নজির গড়তে পারেন না দ্বিতীয় বাছাই ফেডেরার ওপেন যুগে সব চেয়ে বেশি বয়সে (৩৭ বছর ৩৪০ দিন) গ্র্যান্ড স্ল্যাম জয়ের অনন্য রেকর্ড গড়তে পারেন ফাইনালে।

রবিবার উইম্বলডনে: ফাইনালের লড়াইয়ে রজার ফেডেরার বনাম নোভাক জোকোভিচ, সন্ধে ৬.৩০, সরাসরি সম্প্রচার স্টার স্পোর্টস সিলেক্ট ওয়ান চ্যানেলে।

সবাই যা পড়ছেন

Advertisement

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন