বাইশ গজে তাঁর রাজকীয় শাসনে মুগ্ধ ক্রিকেটবিশ্ব। মাঠের বাইরেও বিরাট কোহালির সেই একচ্ছত্র আধিপত্য অব্যাহত। সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং ওয়েবসাইটেও জনপ্রিয়তার দৌড়ে ভারত অধিনায়ক পিছনে ফেলে দিয়েছেন প্রতিপক্ষদের।

তিন ফর্ম্যাটের ক্রিকেট মিলিয়ে এই মুহূর্তে কোহালির মোট রান ২০,৫০২ (৭৭ টেস্টে ৬৬১৩ রান, ২৩৯টি ওয়ান ডে ম্যাচে ১১,৫২০ রান এবং ৭০টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচে ২৩৬৯ রান)। এই দশকে একমাত্র ক্রিকেটার হিসেবে তিনিই এই বিরল নজির স্পর্শ করেছেন। তবে সেখানেই শেষ হচ্ছে না বিরাট-বিক্রম। সোশ্যাল নেটওয়ার্ক সাইটে (টুইটার, ইনস্টাগ্রাম এবং ফেসবুক) তাঁর ভক্তসংখ্যা তিন কোটি ছাড়িয়ে গিয়েছে। দেখা গিয়েছে, সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং ওয়েবসাইট সব চেয়ে বেশি ‘ফলো’ করেন ভক্তরা।

টুইটারে এই মুহূর্তে কোহালির মোট ভক্তসংখ্যা ৩ কোটি ১০ লক্ষ। ইনস্টাগ্রামে ভক্তের সংখ্যা ৩ কোটি ৯৩ লক্ষ এবং ফেসবুক ‘ফলো’ করেন ৩ কোটি ৭০ লক্ষ মানুষ। তালিকার দুই নম্বরে রয়েছেন ‘মাস্টার ব্লাস্টার’ সচিন তেন্ডুলকর। টুইটারে তাঁর মোট ভক্ত ৩ কোটি ১ লক্ষ। ইনস্টাগ্রামে সমর্থকের সংখ্যা ১ কোটি ৬৬ লক্ষ। ফেসবুকে ভক্তসংখ্যা ২ কোটি ৮২ লক্ষ। বরং তিন ধরনের সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং ওয়েবসাইটে অনেকটা দূরে থাকা প্রাক্তন ভারত অধিনায়ক মেন্দ্র সিংহ ধোনি তালিকার তিন নম্বরে রয়েছেন। টুইটারে তাঁর ভক্তের সংখ্যা ৭৭ লক্ষ। ইনস্টাগ্রামে সেই সংখ্যা ১ কোটি ৫৫ লক্ষ। ফেসবুকে সমর্থকের সংখ্যা ২ কোটি ৪ লক্ষ।

বিশ্বক্রিকেটে ‘হিটম্যান’ হিসেবে পরিচিত রোহিত শর্মা তালিকার চার নম্বরে আছেন। টুইটারে তাঁকে ‘ফলো’ করেন ১ কোটি ৪৭ লক্ষ ভক্ত। ইনস্টাগ্রামে সেই সংখ্যা ১ কোটি ৫ লক্ষ। ফেসবুকে সংখ্যা ১ কোটি ১০ লক্ষ। রোহিতের পরে রয়েছেন এই মুহূর্তে হাঁটুতে অস্ত্রোপচার করা সুরেশ রায়না, যুবরাজ সিংহ এবং হরভজন সিংহ। ভারতীয় ক্রিকেটের ‘গব্বর’ শিখর ধওয়ন তালিকার নয় নম্বরে। টুইটারে তাঁর ভক্তের সংখ্যা ৪১ লক্ষ। ইনস্টাগ্রামে ‘ফলোয়ার’ ২৮ লক্ষ। ফেসবুকে সেই সংখ্যা ৭৮ লক্ষ।

বিশ্বের প্রথম দশ জনপ্রিয় ক্রিকেটারের এই তালিকায় রয়েছেন দুই বিদেশি। প্রথমজন এ বি ডিভিলিয়ার্স। দ্বিতীয়জন ওয়েস্ট ইন্ডিজের ক্রিস গেল। ক্রিকেটবিশ্বে ‘মিস্টার ৩৬০ ডিগ্রি’ নামে পরিচিত এ বি-র টুইটারে ভক্তের সংখ্যা ৬৭ লক্ষ। ইনস্টাগ্রামে সংখ্যা ৪৮ লক্ষ। ফেসবুকে ৩৬ লক্ষ। সবে সামগ্রিক বিচারে তিনি শিখর ধওয়নকে পিছনে ফেলে রয়েছেন তালিকার আট নম্বরে। বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে টি-টোয়েন্টি লিগ খেলে বেড়ানো ‘ইউনিভার্স বস’ গেল-এর টুইটারে ভক্তের সংখ্যা ৪৩ লক্ষ। ইনস্টাগ্রামে সংখ্যা ২৮ লক্ষ। ফেসবুকে ভক্ত ৭৮ লক্ষ।

এ দিকে, রবিবারই দিল্লি ও জেলা ক্রিকেট সংস্থা (ডিডিসিএ) জানিয়েছেন, আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে কোহালির অসামান্য অবদানকে সম্মান জানাতে ফিরোজ় শা কোটলা স্টেডিয়ামে একটি স্ট্যান্ড হবে তাঁর নামে। সংস্থার প্রেসিডেন্ট রজত শর্মা এক বিবৃতিতে বলেছেন, ‘‘বিশ্ব ক্রিকেটে বিরাটের অভাবনীয় অবদানের জন্য গর্বিত দিল্লি ও জেলা ক্রিকেট সংস্থাও। তাই তাঁকে সম্মান জানাতে ফিরোজ় শা কোটলা স্টেডিয়ামের একটি স্ট্যান্ড হবে 

তাঁর নামে।’’