Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৮ মে ২০২২ ই-পেপার

URL Copied

ক্রিকেট

T20 World Cup 2021: এ বারের বিশ্বকাপ যেন ২০০৭-এর প্রতিবিম্ব! অদ্ভুত ভাবে মিলে যাচ্ছে দুই বিশ্বকাপ

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা ৩০ অক্টোবর ২০২১ ১১:৪৯
২০০৭ সালে প্রথম টি২০ বিশ্বকাপ। সে বারেই মহেন্দ্র সিংহ ধোনির ভারতের হাতে উঠেছিল ট্রফি। ১৪ বছর পর সেই বিশ্বকাপের সঙ্গেই রয়েছে একাধিক মিল। অধিনায়ক ধোনি যদিও এ বারের বিশ্বকাপে ভারতের মেন্টর।

এ বারের বিশ্বকাপে ভারতের গ্রুপে রয়েছে পাকিস্তান এবং স্কটল্যান্ড। যোগ্যতা অর্জন পর্বে বাংলাদেশ, ওমান এবং পাপুয়া নিউগিনিকে হারিয়ে দেয় স্কটিশরা। সুপার ১২-তে আগে থেকেই পৌঁছে গিয়েছিল ভারত এবং পাকিস্তান।
Advertisement
২০০৭ সালের টি২০ বিশ্বকাপেও ভারত, পাকিস্তান এবং স্কটল্যান্ড একই গ্রুপে ছিল। গ্রুপ ডি-তে স্কটল্যান্ডের বিরুদ্ধে সে বারের ম্যাচ খেলাই হয়নি। পাকিস্তানের বিরুদ্ধে গ্রুপ পর্বের ম্যাচ টাই হয়েছিল, বোল আউটের মাধ্যমে জিতেছিল ভারত।

২০০৭ সালে প্রথম দুই ম্যাচে হেরে যায় ওয়েস্ট ইন্ডিজ। সে বারও তাদের গ্রুপে ছিল দক্ষিণ আফ্রিকা এবং বাংলাদেশ। প্রথম ম্যাচে দক্ষিণ আফ্রিকা এবং দ্বিতীয় ম্যাচে বাংলাদেশের কাছে হেরে গিয়েছিলেন ক্রিস গেলরা।
Advertisement
এ বারের বিশ্বকাপে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে প্রথম ম্যাচে হেরে গিয়েছিল ওয়েস্ট ইন্ডিজ। দ্বিতীয় ম্যাচে হারতে হয়েছিল দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে। ২০০৭ সালের বিশ্বকাপ শুরু হয়েছিল দক্ষিণ আফ্রিকা বনাম ওয়েস্ট ইন্ডিজ ম্যাচ দিয়ে। এ বারের বিশ্বকাপে একে অপরের বিরুদ্ধে না খেললেও প্রথম দিনেই খেলতে নেমেছিল এই দুই দল।

ভারত বনাম পাকিস্তান গ্রুপ পর্বের ম্যাচের ফল আলাদা হলেও, বেশ কিছু মিল রয়েছে সে বার এবং এ বারের বিশ্বকাপের মধ্যে। ধোনির দলের দুই ওপেনার গৌতম গম্ভীর এবং বীরেন্দ্র সহবাগের অবস্থা হয়েছিল লোকেশ রাহুল এবং রোহিত শর্মাদের মতোই।

২০০৭ সালের বিশ্বকাপে গম্ভীর আউট হন শূন্য রানে। সহবাগের রান আটকে থাকে এককের ঘরেই। দু’জনকেই ফিরিয়ে দেন পাক পেসার মহম্মদ আসিফ। এ বারের ভারত-পাকিস্তান ম্যাচে শাহিন আফ্রিদির বলে রোহিত ফেরেন শূন্য রানে, রাহুলের রান আটকে থাকে এককের ঘরেই।

২০০৭ সালে তিন নম্বরে ব্যাট করতে নেমে রবিন উথাপ্পা অর্ধশতরান করেছিলেন। বিরাট কোহলী এ বার অর্ধশতরান করেন তিন নম্বরে ব্যাট করতে নেমে। সে বারের উইকেটরক্ষক ধোনির ব্যাট থেকে এসেছিল ৩০ রানের বেশি। এ বারের বিশ্বকাপে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ৩৯ রান করেন ঋষভ পন্থ।

দুটো ম্যাচেই সেরা হন এক পাক পেসার। ২০০৭ সালে ভারতের বিরুদ্ধে সেরা হয়েছিলেন মহম্মদ আসিফ। এ বারের বিশ্বকাপে সেরা শাহিন আফ্রিদি।

ইংরেজ দলে সে বার দু’জন ক্রিকেটার ছিলেন যাঁদের জন্ম দক্ষিণ আফ্রিকায়। কেভিন পিটারসেন এবং ম্যাট প্রায়র, দুই দক্ষিণ আফ্রিকান ছিলেন সে বারের ইংল্যান্ড দলে। অইন মর্গ্যানের দলে রয়েছেন জেসন রয় এবং টম কারেন। দু’জনের জন্মই দক্ষিণ আফ্রিকায়।

সে বারের বিশ্বকাপে খেলা আট ক্রিকেটার রয়েছেন এ বারের বিশ্বকাপেও। ভারতীয় দলে রয়েছেন রোহিত শর্মা। তা ছাড়া রয়েছেন শাকিব আল হাসান, মাহমুদুল্লাহ, মুশফিকুর রহিম, মহম্মদ হাফিজ, শোয়েব মালিক, ক্রিস গেল, ডোয়েন ব্র্যাভো এবং রবি রামপাল।