Advertisement
২৪ জুলাই ২০২৪
Qatar World Cup 2022

ক্ষুব্ধ দর্শকরা, ব্যবহারের ‘অযোগ্য’ ফাইনালের স্টেডিয়াম! মাথায় হাত কাতার বিশ্বকাপ আয়োজকদের

বিশ্বকাপের জন্যই গড়ে তোলা হয়েছে আধুনিক লুসাইল স্টেডিয়াম। ৮০ হাজার দর্শকাসনের এই স্টেডিয়ামে কাতার বিশ্বকাপের ফাইনাল হওয়ার কথা। প্রতিযোগিতা শুরু দু’মাস আগে সামনে এল একাধিক সমস্যা।

এই লুসাইল স্টেডিয়ামের দর্শক স্বাচ্ছন্দ্য নিয়েই উঠেছে প্রশ্ন।

এই লুসাইল স্টেডিয়ামের দর্শক স্বাচ্ছন্দ্য নিয়েই উঠেছে প্রশ্ন। ছবি: টুইটার।

নিজস্ব প্রতিবেদন
শেষ আপডেট: ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ ১৬:০৪
Share: Save:

কাতার বিশ্বকাপের সংগঠকদের মাথায় হাত। ৮০ হাজার দর্শকাসন বিশিষ্ট নবনির্মিত লুসাইল স্টেডিয়ামে বিশ্বকাপের ম্যাচ আয়োজন অনিশ্চিত হয়ে পড়ল। দর্শকদের জন্য যে সব সুযোগ-সুবিধা থাকা প্রয়োজন, তা এই স্টেডিয়ামে পর্যাপ্ত নয়। এই স্টেডিয়ামেই বিশ্বকাপের ফাইনাল হওয়ার কথা।

গত শুক্রবার লুসাইল স্টেডিয়ামে একটি ফুটবল ম্যাচ আয়োজন করা হয়েছিল। নতুন স্টেডিয়ামটি বিশ্বকাপের জন্য কতটা উপযুক্ত, মূলত তা দেখে নিতেই ম্যাচ আয়োজন করা হয়। সেই ম্যাচে উপস্থিত প্রায় ৭৮ হাজার দর্শক চরম সমস্যায় পড়েন। উপস্থিত দর্শকদের একাংশ ক্ষোভের সুরে বলেছেন, লুসাইল স্টেডিয়াম ব্যবহারের অযোগ্য।

বিশ্বকাপের কথা মাথায় রেখেই এই স্টেডিয়ামটি তৈরি করেছে কাতার। বিশ্বকাপের ১০টি স্টেডিয়ামের অন্যতম এই স্টেডিয়ামটি। দর্শকাসনের বিচারে বৃহত্তম। মাঠ নিয়ে ফুটবলাররা কোনও অভিযোগ না করলেও দর্শকরা অসংখ্য অভিযোগ জানিয়েছেন স্টেডিয়াম কর্তৃপক্ষকে। দর্শকদের অভিযোগ, আসন সংখ্যার অনুপাতে পর্যাপ্ত শৌচাগার নেই স্টেডিয়ামে। জলের তীব্র অভাব রয়েছে। স্টেডিয়ামের গ্যালারির পরিবেশ গরম এবং দমবন্ধকর। প্রায় দু’ঘণ্টা বসে খেলা দেখা অত্যন্ত কষ্টকর। শুধু তাই নয়, স্টেডিয়াম থেকে বেরিয়ে বাস ধরার জন্য প্রায় ৪৫ মিনিট হাঁটতে হয়েছে ফুটবলপ্রেমীদের।

সৌদি আরবের ক্লাব আল হিলাল এবং মিশরের ক্লাব জামালেকের ফুটবলাররাও সাজঘরের শৌচালয়ে জল না পাওয়ার কথা জানিয়েছেন। ফুটবলারদের অভিযোগ, হাফ টাইমের পর সাজঘরের শৌচলয়ে জল ছিল না। কাতার বিশ্বকাপের আয়োজকরা অবশ্য আশ্বস্ত করেছেন ফুটবলপ্রেমীদের। আয়োজক কমিটির পক্ষে বিবৃতি দিয়ে বলা হয়েছে, ‘পরীক্ষামূলক ভাবে দু’ক্লাবের ম্যাচ লুসাইল স্টেডিয়ামে আয়োজন করা হয়। কিছু সমস্যার কথা আমরা জানতে পেরেছি। বিশ্বকাপে সব কিছু যাতে সুষ্ঠু ভাবে হয় সেটাই আমরা নিশ্চিত করতে চেয়েছিলাম।’ নভেম্বরে বিশ্বকাপ শুরুর আগেই সমস্যাগুলি সমাধান করার আশ্বাস দেওয়া হয়েছে বিশ্বকাপ আয়োজকদের পক্ষে।

জলের সমস্যার জন্য স্টেডিয়ামের জল সরবরাহকারী সংস্থাকে দুষেছে কর্তৃপক্ষ। যদিও গ্যালারির গরম এবং দমবন্ধকর পরিস্থিতির অভিযোগ নিয়ে কিছু বলা হয়নি। বিশ্বকাপের আগে আর দু’মাস মতো সময় রয়েছে হাতে। এই সময়ের মধ্যে গ্যালারির পরিবেশ দর্শকদের জন্য স্বস্তিদায়ক করা সম্ভব কি না, তা নিয়েও কোনও শব্দ খরচ করেননি বিশ্বকাপের আয়োজকরা। আয়োজক কমিটির এক মুখপাত্র শুধু বলেছেন, ‘‘কাতার বিশ্বকাপে যে দলগুলি অংশগ্রহণ করবে, তারা দুর্দান্ত অভিজ্ঞতা নিয়ে দেশে ফিরবে।’’

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE