Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১ ই-পেপার

সিরিজ ফয়সালার ম্যাচে কুড়ির বিশ্বকাপের মহড়া

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা ২০ মার্চ ২০২১ ০৭:৪১
তীব্র প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ সিরিজের কার্যত ফাইনাল আজ।

তীব্র প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ সিরিজের কার্যত ফাইনাল আজ।
নিজস্ব চিত্র।

বছরের শেষের দিকে ভারতের মাটিতেই হবে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। সেখানে দুই ফেভারিট আজ, মোতেরায় মুখোমুখি সিরিজ দখলের লড়াইয়ে। তীব্র প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ সিরিজের কার্যত ফাইনাল আজ। অতিমারির দ্বিতীয় স্রোতের আতঙ্কের মধ্যেও যে দ্বৈরথ ক্রিকেটভক্তদের আলোড়িত করছে।

ইংল্যান্ড যে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের মহড়া শুরু করে দিয়েছে, তার প্রমাণ অইন মর্গ্যান পূর্ণ শক্তির দল পেয়েছেন। টেস্ট সিরিজে যা পাননি জো রুট এবং রোটেশন প্রথা সমালোচনার ঝড় তুলেছিল। ইংল্যান্ডের সাদা বলের ক্রিকেটে বিপ্লব ঘটিয়েছেন ক্যাপ্টেন মর্গ্যান। ২০১৯ বিশ্বকাপ জিতেছে তাঁর দল। এ বার সামনে মিশন টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। এবং, সেই লক্ষ্যে তাঁদের প্রধান কাঁটা হতে পারে বিরাট কোহালির ভারত। যদিও মর্গ্যানের ট্রফি ভাগ্য নেই কোহালির। অধিনায়ক কোহালির ট্রফি ক্যাবিনেটে বিশ্বকাপ বা চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি নেই। আর ছ’মাসের মধ্যে নিজেদে দেশে কুড়ির বিশ্বকাপের তাই ড্রেস রিহার্সাল হয়ে থাকছে এই সিরিজ। স্কোরলাইন এখনও পর্যন্ত ২-২। শনিবার যাঁরা জিতবেন, শুধু যে ট্রফিই হাতে তুলবেন, তা নয়। বিশ্বকাপ অভিযানে কয়েক পা এগিয়ে থাকবেন।

কোহালি নিজে সামান্য চোট পাওয়ায় চতুর্থ ম্যাচের শেষ দিকে মাঠে ছিলেন না। তবে ভারত অধিনায়ক জানিয়েছেন, তিনি শনিবারের ম্যাচে খেলার অবস্থাতেই থাকবেন। তেমনই জোর চর্চা সূর্যকুমার যাদব ও ওয়াশিংটন সুন্দরের ক্যাচ বিতর্ক নিয়ে। কাঠগড়ায় আম্পায়ারদের ‘সফ্‌ট সিগন্যাল’ (উপরের বিশ্লেষণ দেখুন)। কোহালি বলেছেন, মাঠের আম্পায়ারেরা ‘আমি বুঝতে পারছি না’ কেন বলতে পারেন না? সিরিজ ফয়সালার ম্যাচে ব্যর্থ কে এল রাহুলের জায়গায় ইশান কিষানের মতো সফল, তরুণ প্রতিফাকে খেলানো হয় কি না, তা দেখার অপেক্ষায় ক্রিকেট ভক্তরা।

Advertisement

ভারতের তরুণ ব্রিগেড নিঃসন্দেহে ক্রিকেট বিশ্বের নজর কেড়ে নিয়েছে। প্রথম আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলতে নামা সূর্যকুমার যাদব প্রথম বলেই ছক্কা মারেন। তা-ও আবার জফ্রা আর্চারের বলে। সূর্যকে এ নিয়ে জিজ্ঞেস করা হলে বৃহস্পতিবার সাংবাদিক সম্মেলনে বলেন, “আইপিএলের শেষ তিনটি মরসুমে জফ্রাকে খেলার অভিজ্ঞতা রয়েছে। প্রথম ছয় ওভারের মধ্যে ও কী রকম বল করতে পারে তাও জানি। নতুন ব্যাটসম্যান এলেই ব্যাকফুটে খেলানোর চেষ্টা করে জফ্রা। তাই প্রথম বলে হুক করতে সমস্যা হয়নি।” যোগ করেন, “সিরিজ নির্ণায়ক ম্যাচে এ রকমই আগ্রাসী ভঙ্গি নিয়ে
এগোতে চাই।” আইপিএলের দৌলতে ভারতীয় তরুণরা এখন এ রকমই ভয়ডরহীন। সাংবাদিক বৈঠকের পরে শার্দূল ঠাকুরের সঙ্গে আলাপচারিতায় সূর্য বলে যান, “ভারতীয় দলকে জেতানোর স্বপ্ন নিয়েই ক্রিকেট খেলেছি। নিজের খেলা চালিয়ে যাওয়াক চেষ্টা করেছি। তাতেই আমি সফল হয়েছি।” প্রথম তিনটি ম্যাচে দেখা গিয়েছে, টস যার ম্যাচ তার। চতুর্থ ম্যাচে টস হেরেও ম্যাচ জিতেছেন কোহালিরা। আজ, ট্রফির দ্বৈরথে টস কী ভূমিকা নেবে?

আরও পড়ুন

More from My Kolkata
Advertisement