Advertisement
২১ এপ্রিল ২০২৪
আই লিগ

আই লিগেও জৈব সুরক্ষা বলয়, কঠোর নিয়মের বেড়াজালে ফুটবলাররা

কয়েকদিন আগে আইএফএ-র সঙ্গে যৌথ উদ্যোগে একটি ‘মেডিক্যাল হাব’ গড়েছে এআইএফএফ।

জীবাণুমুক্ত করা হচ্ছে বল। ছবি এআইএফএফ

জীবাণুমুক্ত করা হচ্ছে বল। ছবি এআইএফএফ

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ০৬ জানুয়ারি ২০২১ ১৭:৫২
Share: Save:

হাতে আর মাত্র চারদিন। তারপরেই শুরু হবে আই লিগ। কোভিড পরিস্থিতির জন্য এবার আইএসএলের মতো আই লিগেও জৈব সুরক্ষা বলয়ের মধ্যেই আয়োজিত হবে। এই বলয়কে আরও আরও সুরক্ষিত করার জন্য বেশ কয়েকটা নির্দেশিকা জারি করা হয়েছে। মোট ১১টি দল অংশ নেবে এবারের প্রতিযোগিতায়।

শুধু ১১ দলের ফুটবলাররাই নয়, প্রতিযোগিতার সঙ্গে জুড়ে রয়েছে আরও একাধিক মানুষ। তাই সুষ্ঠুভাবে প্রতিযোগিতা আয়োজনের জন্য জৈব বলয় গড়া হবে, সেটা আগেই জানিয়েছিল সর্বভারতীয় ফুটবল ফেডারেশন। কয়েকদিন আগে আইএফএ-র সঙ্গে যৌথ উদ্যোগে একটি ‘মেডিক্যাল হাব’ গড়েছে এআইএফএফ।

লিগ আয়োজনের জন্য কোন কোন নির্দেশ জারি করেছে ফেডারেশন। একবার দেখে নেওয়া যাক:

১) জৈব বলয় তৈরি করে শহরের দুটি পাঁচতারা হোটেলে থাকবে অংশগ্রহণকারী ১১টি দল।

২) হোটেলে ঢোকার আগে প্রতিটি ফুটবলারের আরটি-পিসিআর কোভিড টেস্ট বাধ্যতামূলক। রিপোর্ট নেগেটিভ এলেই হোটেলে ঢোকার অনুমতি।

৩) সবাইকে শুরুতে ৭ দিনের কোয়রান্টিনে থাকতে হবে।

৪) ওই ৭ দিনের কোয়রান্টিনে আরও দু’বার কোভিড টেস্ট করাতে হবে।

৫) এই দুটি করোনা পরীক্ষার ফল নেগেটিভ এলেই মিলবে অনুশীলন করার অনুমতি।

৬) প্রতিযোগিতা চলার সময় ৫-৬ দিন অন্তর করোনা পরীক্ষা বাধ্যতামূলক।

৭) এরপরেও কেউ করোনায় আক্রান্ত হলে ১৭ দিন কোয়রান্টিনে থাকতে হবে।

৮) এরপর সেই ব্যক্তির দুটি কোভিড পরীক্ষা নেগেটিভ এলে সে আবার দলে যোগ দিতে পারবে।

এই বিষয়ে লিগ সিইও সুনন্দ ধর বলেছেন, “এবারের আই লিগ আরও বেশি চ্যালেঞ্জের। তাই সুষ্ঠুভাবে ও দায়িত্ব নিয়ে জৈব বলয় মেনে চলতে হবে। কারণ, ফুটবলার ও সাপোর্ট স্টাফদের সুরক্ষিত রাখা আমাদের প্রধান দায়িত্ব।”

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)

অন্য বিষয়গুলি:

I League bio bubble quarantine
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE