Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৬ অক্টোবর ২০২১ ই-পেপার

বছরের তৃতীয় সোনা, পোলান্ডে সেরা মেরি

নিজস্ব প্রতিবেদন
১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৮ ০৩:০৪
চ্যাম্পিয়ন: পঁয়ত্রিশ বছর বয়সেও সোনা জিতছেন। পোলান্ডের বিজয়মঞ্চে হাসিখুশি মেরি কম। ছবি: টুইটার।

চ্যাম্পিয়ন: পঁয়ত্রিশ বছর বয়সেও সোনা জিতছেন। পোলান্ডের বিজয়মঞ্চে হাসিখুশি মেরি কম। ছবি: টুইটার।

বয়স ৩৫। কিন্তু এখনও কিংবদন্তি ভারতীয় বক্সার মেরি কম পদক জিতে চলেছেন। এ বছরই বিভিন্ন প্রতিযোগিতায় তাঁর তিনটি সোনা জেতা হয়ে গেল। তৃতীয়টি জিতলেন শনিবার পোলান্ডের গ্লিওয়াইসে আন্তর্জাতিক বক্সিং প্রতিযোগিতায়। যথেষ্ট শক্তিশালী এই প্রতিযোগিতায় অংশ নিলেন বিশ্ব ক্রমতালিকার উপরের দিকে থাকা সেরা বক্সাররা।

নিজের ৪৮ কেজি বিভাগেই লড়লেন পাঁচ বারের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন মেরি। প্রসঙ্গত, চোট থাকায় তিনি জাকার্তা এশিয়ান গেমসে অংশ নেননি। কিন্তু এখন যে তিনি পুরোপুরি সুস্থ তা বোঝা গেল পোলান্ডে। কাজাখস্তানের আইগেরিম কাসানায়েভার বিরুদ্ধে তিনি জিতলেন ৫-০ ফলে। প্রতিযোগিতায় সিনিয়র বিভাগে ভারতের এটাই একমাত্র সোনা। এ বছর মেরি কম অন্য দু’টি সোনা জিতেছেন দিল্লিতে প্রথম ইন্ডিয়া ওপেন এবং গোল্ড কোস্টে কমনওয়েলথ গেমসে। সঙ্গে বুলগেরিয়ার স্টানজা মেমোরিয়ালের মতো বক্সিংয়ের বড় আসরে তিনি রুপো জেতেন।

অলিম্পিক্সে ব্রোঞ্জ পদকজয়ী মেরিকে শনিবার লড়তে হয়েছে তাঁর চেয়ে উচ্চতায় বড় প্রতিযোগীর সঙ্গে। তবু তাঁর অসাধারণ প্রতি-আক্রমণের সামনে দাঁড়াতেই পারেননি কাজাখস্তানের বক্সার। মেরির লড়াই দেখে মুগ্ধ ভারতীয় দলের বিদেশি কোচ রাফায়েল বার্গামাসোর প্রতিক্রিয়া, ‘‘নিজের স্ট্র্যাটেজি এত সুন্দর ভাবে মেরি প্রয়োগ করেছে যে বলার নয়।’’ মেরির লড়াই বিশেষ করে শেষ তিন মিনিটে ছিল দেখার মতো। প্রতিপক্ষের সামান্য জড়তার সুযোগ নিয়ে দারুণ আক্রমণাত্মক মেজাজে তিনি ঝাঁপিয়ে পড়েন। এই সাফল্যে উল্লসিত মেরি নিজেও। টুইট করে তিনি লিখলেন, ‘‘যাঁরা ভাবছেন বেশ সহজেই আমি জিতেছি তাঁরা ঠিক ভাবছেন না। আমাকে যথেষ্ট লড়াই করতে হয়েছে।’’ প্রতিযোগিতায় ভারতকে দ্বিতীয় পদকটি দিলেন মনীষা। জিতলেন রুপো। ৫৪ কেজি বিভাগে। ফাইনালে ইউক্রেনের ইভানা ক্রুপেনিয়ার কাছে ২-৩ হেরে গেলেও তিনি অসাধারণ লড়াই করেন। তাঁর লড়াই দেখে ভারতীয় দলের কোচের মন্তব্য, ‘‘ভাগ্য খারাপ বলে একটুর জন্য ও সোনা জিততে পারল না।’’

Advertisement

এই প্রতিযোগিতায় সিনিয়রে ভারত চারটি ব্রোঞ্জ পদকও জিতেছে। এই চার জন হলেন এল সারিতা দেবি (৬০ কেজি), রীতু গ্রেওয়াল (৫১ কেজি), লভলিনা বর্গোহাইন (৬৯ কেজি) এবং পূজা রানি (৮১ কেজি)। সঙ্গে এখানে যুব বিভাগে ৫১ কেজিতে ভারতকে একমাত্র সোনা দিয়েছে জ্যোতি গুলিয়া। এই সোনা জেতায় সে আগামী মাসে আর্জেন্টিনায় যুব অলিম্পিক্সে খেলার যোগ্যতাও অর্জন করেছে। পাশাপাশি জুনিয়রে ভারতীয় মেয়েদের পারফরম্যান্স সত্যিই অসাধারণ। তারা পদক জিতেছে মোট ১৩টি। যার মধ্যে সোনা ও রুপো ছ’টি করে। সঙ্গে একটি ব্রোঞ্জ।

আরও পড়ুন

Advertisement