Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৪ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

রামচন্দ্রকে পাল্টা তোপ গাওস্করের

ইস্তফাপত্রে রামচন্দ্র লিখেছেন, হয় গাওস্কর তাঁর কোম্পানির দায়িত্ব ছাড়ুন। নয়তো ধারাভাষ্য দেওয়া বন্ধ করুন। এখানেই শেষ নয়। তিনি আপত্তি জানিয়েছে

নিজস্ব প্রতিবেদন
০৪ জুন ২০১৭ ০৪:১১

তাঁর বিরুদ্ধে স্বার্থসংঘাতের যে অভিযোগ করেছেন বোর্ডের কমিটি অফ অ্যাডমিনিস্ট্রেটর (সিওএ) থেকে সদ্য ইস্তফা দেওয়া ইতিহাসবিদ রামচন্দ্র গুহ, এ বার তার পাল্টা দিলেন সুনীল গাওস্কর।

ক্রিকেট ইতিহাসে সর্বকালের সেরা ব্যাটসম্যানদের অন্যতম শনিবার বলেন, ‘‘আমার সততা নিয়ে প্রশ্ন তোলায় আমি মর্মাহত। আমার বিরুদ্ধে যে স্বার্থসংঘাতের অভিযোগ তোলা হয়েছে, তা সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন ও মিথ্যে।’’

সুপ্রিম কোর্ট নিযুক্ত বোর্ডের পর্যবেক্ষক কমিটির চেয়ারম্যান বিনোদ রাই-কে দেওয়া ইস্তফাপত্রে রামচন্দ্র অভিযোগ করেছেন, গাওস্কর একই সঙ্গে এক স্পোর্টস ম্যানেজমেন্ট কোম্পানির কর্ণধার এবং বোর্ড নিযুক্ত ধারাভাষ্যকারও। এর উত্তরে গাওস্করের পাল্টা চ্যালেঞ্জ, ‘‘ক্রিকেটারদের নির্বাচনে আমি প্রভাব খাটিয়েছি, এ রকম একটা উদাহরণ উনি দিন?’’ সঙ্গে যোগ করেন, ‘‘স্বার্থসংঘাতের প্রশ্ন উঠে আসায় আমি রীতিমতো বিভ্রান্ত। আমি আমার মতো করে ভারতীয় ক্রিকেটকে সেবা করেছি। কখনও ক্রিকেটার হিসেবে। কখনও আবার অল্প সময়ের জন্য প্রশাসক হিসেবে।’’ এখানেই না থেমে তিনি আরও বলেন, ‘‘আমি যা করেছি, তার চেয়ে অনেক বেশি ভারতীয় ক্রিকেট আমার জন্য করেছে।’’

Advertisement

ইস্তফাপত্রে রামচন্দ্র লিখেছেন, হয় গাওস্কর তাঁর কোম্পানির দায়িত্ব ছাড়ুন। নয়তো ধারাভাষ্য দেওয়া বন্ধ করুন। এখানেই শেষ নয়। তিনি আপত্তি জানিয়েছেন মহেন্দ্র সিংহ ধোনিকে গ্রেড ‘এ’-তে রাখা নিয়েও। প্রাক্তন ওপেনার এরও জবাব দিয়েছেন আক্রমণাত্মক ভাবে। বলেছেন, ‘‘অসাধারণ ক্রিকেটার বলেই ধোনিকে গ্রেড ‘এ’-তে রাখা হয়েছে। ভারতীয় ক্রিকেটে ধোনির যা অবদান, তাতে ওকে নিয়ে কী ভাবে কেউ প্রশ্ন তুলতে পারে?’’

ভারতীয় ক্রিকেটে তারকা সংস্কৃতি নিয়েও তোপ দেগেছেন পদত্যাগী পর্যবেক্ষক। গাওস্কর বলেছেন, ‘‘যদি তারকা সংস্কৃতি থেকে থাকে, তা হলে ঈর্ষার সংস্কৃতিও রয়েছে। সেই ঈর্ষা তাদের প্রতি, যারা অতীতে ভারতীয় ক্রিকেটকে সমৃদ্ধ করেছে ও করে চলেছে।’’

আরও পড়ুন

Advertisement