• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

প্রেমে আপত্তি, ছেলেকে ‘কোপাল’ বাবা-ই!

Alimudding
আলিমউদ্দিন শেখ

ছেলের প্রেমের সম্পর্কে সায় নেই, জানিয়ে দিয়েছিলেন বাবা। কিন্তু সম্পর্ক ছিন্ন করতে রাজি হননি তরুণ। সে নিয়ে বচসা থেকে ছেলেকে কুপিয়ে খুনের অভিযোগ উঠল বাবার বিরুদ্ধে। পূর্ব বর্ধমানের পূর্বস্থলীতে স্বামীর বিরুদ্ধে খুনের অভিযোগ দায়ের করেছেন নিহতের মা। পুলিশ জানায়, অভিযুক্ত পলাতক।

পরিবার ও স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, পূর্বস্থলী ২ ব্লকের হামিদপুরের আলিমউদ্দিন শেখ (২০) কেরলে রাজমিস্ত্রির কাজ করতেন। মাসখানেক আগে বাড়ি ফেরেন। আলিমউদ্দিনের মা রেজিনা বিবির দাবি, পাশের গ্রামের এক তরুণীর সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক ছিল ছেলের। সম্প্রতি বিয়ে করার কথা বাড়িতে জানান তিনি। রেজিনা অভিযোগ করেন, তাঁর স্বামী আব্দুল সালেক শেখের ছেলের এই সম্পর্কে আপত্তি ছিল। তিনি ছেলেকে জানিয়েছিলেন, দুই মেয়ের বিয়ের পরে ছেলের বিয়ে দেওয়ার কথা ভাববেন।

পুলিশের কাছে রেজিনা অভিযোগ করেছেন, শনিবার রাত সাড়ে ১১টা নাগাদ আলিমউদ্দিন ছাদে গিয়ে ফোনে প্রেমিকার সঙ্গে কথা বলছিলেন। তা দেখে রেগে যান আব্দুল। বাবা-ছেলের মধ্যে বচসা বাধে। আলিমউদ্দিন তখন নিজের ঘরে চলে গেলে আব্দুল একটি ছুরি হাতে সেখানে হাজির হন। রেজিনার অভিযোগ, এর পরেই ছেলের বুকে, পেটে, কাঁধে এলোপাথাড়ি ছুরি চালাতে থাকেন আব্দুল। রক্তাক্ত অবস্থায় ঘরের ভাঙা জানলা দিয়ে পালানোর চেষ্টা করেন আলিমউদ্দিন। ধাওয়া করে গিয়ে ফের আঘাত করেন তাঁর বাবা। বাড়ির সামনে রাস্তায় মৃত্যু হয় আলিমউদ্দিনের। স্বামীকে বাধা দিতে গিয়ে তাঁর হাতেও ছুরির কোপ পড়েছে বলে জানান রেজিনা। পড়শিদের দাবি, ঘটনার পরেই এলাকা ছেড়ে পালান আব্দুল।

রেজিনার আক্ষেপ, ‘‘স্বামীকে বলেছিলাম, ছেলে যখন কাউকে পছন্দ করেছে, তুমি বাধা দিও না।  কিন্তু কোনও কথাই শুনল না!’’ পূর্ব বর্ধমানের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (গ্রামীণ) ধ্রুব দাস বলেন, ‘‘খুনের মামলা রুজু হয়েছে। অভিযুক্তের খোঁজ চলছে।’’

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন