• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

সম্পত্তিকর থেকে নকশা, মুশকিল আসানে বাড়ির দরজায় পৌঁছবে কলকাতা পুরসভা

Administrator Firhad Hakim launched new project  KMC at Doorstep
কলকাতা পুরসভা। —ফাইল চিত্র।

সম্পত্তিকর থেকে মিউটেশন, রাস্তা থেকে আলো— নানা সমস্যায় জেরবার হয়ে পুরসভার অফিসে ঘুরতে হয় নাগরিকদের। করোনার জেরে সমস্যা আরও বেড়েছে। বিশেষ করে অসুবিধায় পড়ছেন বয়স্ক নাগরিকেরা। করোনা আতঙ্কে ভুগছেন অনেকেই। অন্য দিকে পুরসভার কর আদায়েও ঘাটতি হচ্ছে। সে কথা মাথায় রেখে এ বার পুরসভার নতুন উদ্যোগ ‘কেএমসি অ্যাট ডোর স্টেপ’। পুরসভার অফিসে গিয়ে আর হাপিত্যেস করে বসে থাকতে হবে না, উল্টে আপনারই বাড়ির দরজায় পৌঁছবে কলকাতা পুরসভা। এ বার থেকে প্রতিটি ওয়ার্ডে ক্যাম্প করে নাগরিকদের সমস্যা সমাধান করবেন পুর আধিকারিকেরা।

এতে এক দিকে যেমন নাগরিকদের সুবিধা হবে, তেমনই কর আদায়েও গতি আসবে বলে মনে করা হচ্ছে। শনিবার কলকাতা পুরসভার প্রশাসক মণ্ডলীর চেয়ারম্যান ফিরহাদ হাকিম বলেন, “মানুষের দরবারে যাবে পুরসভা। ক্যাম্প করা হবে। স্থানীয় বাসিন্দারা সেখানে এসে তাঁদের সমস্যার কথা জানাতে পারবেন।

মিউটেশন, অ্যাসেসমেন্ট, বাড়ির প্ল্যান, সম্পত্তির কর-সহ সব যে কোনও সমস্যার সমাধানও হবে সেখানেই। থাকবেন ইঞ্জিনিয়াররাও। রাস্তা খারাপ থাকলে সঙ্গে সঙ্গে সমাধানসূত্র মিলবে।”

আরও পড়ুন: বেড খালি নেই, ফিরিয়ে দিল একাধিক হাসপাতাল, ১১ ঘণ্টা চিকিৎসাহীন থেকে মৃত কিশোর

পুরসভা সূত্রে খবর, গত ৮ অগস্ট ৬৮ নম্বর ওয়ার্ড থেকে শুরু হচ্ছে ‘কেএমসি অ্যাট ডোর স্টেপ’-এর পথ চলা। ২২ অগস্ট ৫৮ ওয়ার্ডে এবং ২৯ হবে ৮২ ওয়ার্ডে হবে ক্যাম্প। এর পর কলকাতা পুরসভার সব ওয়ার্ডেই বসবে ক্যাম্প। আগে থেকেই মাইকে প্রচার করে জানিয়ে দেওয়া হবে। অথবা প্রতিটি ওয়ার্ডের কোয়ার্ডিনেটররাও জানিয়ে দেবেন, কবে ক্যাম্প কোথায় বসবে। ফিরহাদ জানান, মানুষকে পুরসভার অফিসে আসতে হবে না। ক্যাম্পের পর ধীরে ধীরে সব কিছুই অন-লাইনে পরিষেবা মিলবে। 

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন