কলকাতা বিমানবন্দর থেকে গ্রেফতার করা হল নীরব মোদীর সহযোগী দীপক কুলকার্নিকে। সোমবার রাতে কলকাতা বিমানবন্দরের ইমিগ্রেশন দফতর দীপককে প্রথমে আটক করে। পরে গ্রেফতার করা হয়।

পুলিশ সূত্রে খবর, পঞ্জাব ন্যাশনাল ব্যাঙ্ক (পিএনবি)-এ প্রতারণার অভিযুক্ত পলাতক হিরে ব্যবসায়ী নীরব মোদীর অন্যতম সহযোগী ছিলেন এই দীপক কুলকার্নি। মুম্বই ইডির তরফে তাঁর বিরুদ্ধে লুক আউট জারি করা হয়েছিল। এ দিন কলকাতা বিমানবন্দরের ইমিগ্রেশন দফতর দীপককে আটক করার পরই তাঁকে কলকাতার ইডি আধিকারিকদের হাতে তাঁকে তুলে দেয়। পরে ইডির দুই আধিকারিক দীপককে গ্রেফতার করে নিজেদের দফতরে নিয়ে আসেন।

পিএনবি-র ভুয়ো লেটার অব আন্ডারটেকিং জমা দিয়ে বিভিন্ন ব্যাঙ্ক থেকে প্রায় ১৩,০০০ কোটি টাকার ঋণ জালিয়াতির অভিযোগ উঠেছে নীরব, তাঁর মামা মেহুল চোক্সী ও তাঁদের সহযোগীদের বিরুদ্ধে। এ বছরের গোড়ায় অভিযোগ সামনে আসার আগেই অভিযুক্তেরা দেশ ছাড়েন। তদন্তে নেমে দেশের বিভিন্ন জায়গা থেকে ইতিমধ্যেই নীরব ও তাঁর পরিবারের বেশ কিছু সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করে ইডি।

চার্জশিটে তাদের অভিযোগ, ব্যাঙ্ক জালিয়াতি করে অন্তত ৬,৪০০ কোটি টাকা বিদেশের বিভিন্ন ভুয়ো সংস্থায় পাচার করেছেন নীরব। এর পরেই কালো টাকা প্রতিরোধ আইনে ওই ব্যবসায়ীর সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করতে আদালতের সম্মতি চায় তারা। যোগাযোগ করে বিদেশি তদন্তকারী সংস্থাগুলির সঙ্গে।ইতিমধ্যের নীরবের বিরুদ্ধে জামিন অযোগ্য গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি হয়েছে। বিদেশে ইন্টারপোলের রেড কর্নার নোটিস।