নতুন দায়িত্ব পেয়েই আসানসোলের পরিবেশ রক্ষার বিষয়ে ভাবনাচিন্তা শুরু করেছেন, বন ও পরিবেশ মন্ত্রকের প্রতিমন্ত্রী হওয়ার পরে আসানসোলে ফিরেই জানালেন বাবুল সুপ্রিয়। শনিবার আসানসোলে পৌঁছে তিনি জানান, দফতরের কাজকর্ম বুঝে নিতে আরও অন্তত দিন পনেরো সময় লাগবে। তার পরেই আসানসোলের পরিবেশ রক্ষায় কিছু পদক্ষেপ করবেন বলে আশ্বাস তাঁরা। কুমারপুরের রেল ওভারব্রিজ-সহ নিজের সংসদ এলাকার অসম্পূর্ণ কাজগুলি নিয়েও উদ্যোগী হবেন বলে জানান তিনি।

শনিবার সকালে দিল্লি থেকে রাজধানী এক্সপ্রেসে সপরিবারে আসানসোলে পৌঁছন বাবুল। দ্বিতীয় বার কেন্দ্রীয় প্রতিমন্ত্রী হওয়ার পরে এ দিনই তিনি শহরে এলেন। সকাল থেকেই স্টেশনে ভিড় জমান বিজেপি কর্মী-সমর্থকেরা। ট্রেন থেকে নামার পরেই বাবুলকে ফুলের মালা দিয়ে, মিষ্টি খাইয়ে অভ্যর্থনা জানান তাঁরা। মহিশীলায় বাবুল নিজের আবাসনে পৌঁছনোর পরে সেখানেও কর্মী-সমর্থকেরা এক প্রস্ত উল্লাসে মেতে ওঠেন।

বাবুল বলেন, ‘‘আসানসোলের কাজগুলি আরও দ্রুত গতিতে করতে চাই। তৃণমূলের উচিত উন্নয়নের কাজে একেবারে বাধা না দেওয়া। তা হলে ফের শহরের মানুষ ওদের যোগ্য জবাব দেবেন।’’ তিনি জানান, আসানসোলে বেশ কিছু কল-কারাখানা থেকে দূষণ ছড়ানোর অভিযোগ রয়েছে। সেগুলির তালিকা তৈরি করে কারখানা কর্তৃপক্ষকে চিঠি পাঠানো হবে। প্রয়োজনে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। বাবুলের অভিযোগ, কুমারপুরের কাছে জিটি রোডের দু’দিকে অবৈধ দখলদার উচ্ছেদ না হওয়ায় রেল উড়ালপুল তৈরির কাজ আটকে রয়েছে। রাজ্য সরকারের এ বিষয়ে রেলকে সহযোগিতা করা উচিত বলেও দাবি করেন তিনি। তাঁর আরও দাবি, আসানসোল লোকসভা কেন্দ্রের অন্তর্গত সাত বিধানসভা এলাকাতেই জয় পেয়েছে বিজেপি। তাই সাত এলাকায় আলাদা বিজয় মিছিল করবে দল। তাতে বাধা পেয়ে যদি গণ্ডগোল বাধে, তার দায় রাজ্য সরকারের উপরে বর্তাবে, হুঁশিয়ারি তাঁর।

এ দিন দুপুরে পাণ্ডবেশ্বর সিনেমা হল মোড়ে দলের একটি কার্যালয়ের উদ্বোধন করেন বাবুল। তিনি বলেন, “এই জয় আমার একার নয়। কর্মী-সমথর্কেরা যাঁরা আপ্রাণ পরিশ্রম করেছেন, তাঁদেরও জয়। যাঁরা আমাকে ভোট দেননি, তাঁদের জন্যও উন্নয়নের কাজ করতে চাই।” স্থানীয় রক্ষাকালী মন্দিরে গিয়ে পুজোও দেন তিনি।

তৃণমূলের পশ্চিম বর্ধমান জেলা চেয়ারম্যান ভি শিবদাসনের পাল্টা দাবি, ‘‘গত বারও আসানসোলের জন্য অনেক কিছু করবেন বলেছিলেন সাংসদ। কিন্তু করেননি। আসলে ওঁদের কাজ করার ক্ষমতাই নেই। তৃণমূল কখনও উন্নয়নের কাজে বাধা দেয় না। এ বার উনি (বাবুল) কাজ করলে কেউ বাধা দেবে না।’’