রোগীর দেখভালে হেলাফেলার অভিযোগ তুলে কর্তব্যরত চিকিৎসককে মারধরের অভিযোগ উঠল অ্যাম্বুল্যান্স চালকদের বিরুদ্ধে। বুধবার রাত সওয়া এগারোটা নাগাদ বীরভূমের মুরারই ব্লক হাসপাতালের ঘটনা। 

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, এক মহিলাকে নিয়ে জরুরি বিভাগে আসেন এক অ্যাম্বুল্যান্স চালক। তখন সেখানে একাই ছিলেন চিকিৎসক আবুজার হায়দারি। তাঁর দাবি, ‘‘ডায়েরিয়ার প্রাথমিক ওষুধ এবং স্যালাইন দেওয়ার পরে রোগীর অবস্থা স্থিতিশীল হয়। সে ব্যাপারে নিশ্চিত হয়ে বিশ্রাম নিতে গিয়েছিলাম। দুপুর থেকে টানা ডিউটি ছিল।’’ কেন রোগীকে ফেলে বিশ্রাম নিচ্ছেন, এই অভিযোগ তুলে জনা পনেরো অ্যাম্বুল্যান্স এবং গাড়ি চালক তাঁর উপরে চড়াও হন বলে অভিযোগ। বিশ্রামঘরের দরজা ভেঙে বের করে আনা হয় চিকিৎসককে। চলে কিল-ঘুষি। ছিঁড়ে যায় জামা। কর্তব্যরত সিভিক ভলান্টিয়ার ছুটে এলে তাঁকেও মারধর করা হয় বলে অভিযোগ। তাঁর বুকে, হাতে চোট লাগে। 

ঘটনার পরে বাকি চার চিকিৎসক পুলিশের সামনে কর্মবিরতির কথা ঘোষণা করে হাসপাতাল থেকে বেরিয়ে যান। এর পরেই সক্রিয় হয় পুলিশ। ঘটনাস্থল থেকে তড়িঘড়ি গ্রেফতার করা হয় এক অ্যাম্বুল্যান্স চালককে। পরে পুলিশ এবং ব্লক স্বাস্থ্য আধিকারিকের মধ্যস্থতায় দোষীদের উপযুক্ত শাস্তির আশ্বাসে রাতেই তাঁরা কাজে যোগ দেন। 

এবার শুধু খবর পড়া নয়, খবর দেখাও।সাবস্ক্রাইব করুনআমাদেরYouTube Channel - এ।