পুজোর আগে মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক নিয়ে প্রত্যাশা বাড়ছে রাজ্যের সরকারি কর্মীদের। আগামী  শুক্রবার নেতাজি ইন্ডোর স্টেডিয়ামে রাজ্যের সরকারি ফেডারেশনের সঙ্গে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বৈঠক। সেই বৈঠকে রাজ্যের সরকারি কর্মীদের জন্য মমতা নতুন কোনও সুখবর দিতে পারেন বলে ফেডারেশনের আশা।

কেন্দ্র একের পর এক ধাপে কেন্দ্রীয় কর্মীদের জন্য ডিএ বৃদ্ধি করলেও এ রাজ্য তার থেকে প্রায় ২৫% পিছিয়ে রয়েছে। এ নিয়ে সরকারি কর্মীদের ক্ষোভের আঁচ ইতিমধ্যেই শাসক শিবিরে পৌঁছেছে। লোকসভা ভোটে ৯০% আসনে সরকারি কর্মীদের সমর্থনের সিংহভাগ গিয়েছে বিরোধী প্রার্থীদের দিকেই। তার পর গোটা বিষয়টি নিয়ে নড়েচড়ে বসে শাসক তৃণমূল। ফেডারেশনের কাছ থেকে পাওয়া রিপোর্টে দলীয় নেতৃত্ব দেখেছেন, জেলায় জেলায় সরকারি কর্মীদের একটা বড় অংশই বিজেপির কাছাকাছি চলে গিয়েছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে সাংগঠনিক ক্ষেত্রেও বেশ কিছু রদবদল করা হয়েছে। পূর্ণ সময় এই সংগঠন দেখভালের জন্য দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারীকে। পরিস্থিতি বুঝে ইতিমধ্যে তিন দফায় ফেডারেশনের কর্তাদের সঙ্গে বৈঠকও করেছেন তিনি। দলীয় সূত্রের খবর, সেই বৈঠকগুলিতে বেতন-কাঠামো পুনর্বিন্যাস এবং মহার্ঘ ভাতা বৃদ্ধি না হওয়ায় ক্ষোভের কথা জেনেছেন তিনি।

এই অবস্থায় মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক ঘিরে দল ও কর্মী সংগঠনে আগ্রহ তৈরি হয়েছে। ফেডারেশনের আহ্বায়ক দিব্যেন্দু রায় মঙ্গলবার বলেন, ‘‘মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উপর আমাদের আস্থা রয়েছে। ফলে ওঁর বক্তব্য শুনতেই যাব।’’ তবে ফেডারেশনের আশা, প্রায় ১০ লক্ষ রাজ্য সরকারি কর্মীর জন্য ওই বৈঠকে বেতন এবং ডিএ বৃদ্ধির সুখবর শোনা যেতেও পারে।