প্রার্থী পাচ্ছে না বিজেপি, সভায় দাবি করলেন পার্থ
বিজেপির দক্ষিণ জেলা সাংগঠনিক সভাপতি জগন্নাথ সরকার পাল্টা বলেন, “আমাদের প্রার্থী নেই, তা নয়। বরং বেশি আছে বলেই বাছাই করতে সময় লাগছে।”    
TMC

রানাঘাটে তৃণমূলের সভা। বুধবার। নিজস্ব চিত্র

বিজেপি প্রার্থী খুঁজে পাচ্ছে না বলে রানাঘাটে দাবি করলেন তৃণমূলের মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায়। 

বুধবার সন্ধ্যায়  সন্ন্যাসী বাজারে রানাঘাট ১ ব্লকে দলের প্রার্থী রূপালী বিশ্বাসের সমর্থনে সভা করতে এসে পার্থ বলেন, ‘‘জাল ফেলে দু’চারটে পুঁটি মাছ, পচা মাছ ছাড়া আর কিছু ওরা পায়নি। শুধু বলছে, ‘হবে হবে’। কী হবে?’’ বিজেপির দক্ষিণ জেলা সাংগঠনিক সভাপতি জগন্নাথ সরকার পাল্টা বলেন, “আমাদের প্রার্থী নেই, তা নয়। বরং বেশি আছে বলেই বাছাই করতে সময় লাগছে।”    

এ দিন তৃণমূলে‌র প্রস্তুতি সভায়  ছিলেন পার্য ছাড়াও ছিলেন মন্ত্রী রত্না ঘোষ, জেলা তৃণমূল সভাধিপতি ও গৌরীশঙ্কর দত্ত, জেলা পরিষদের সভাধিপতি রিক্তা কুণ্ডু, বিধায়ক শঙ্কর সিংহ, সমীর পোদ্দার, অরিন্দম ভট্টাচার্য, শান্তিপুরের পুরপ্রধান অজয় দে-সহ অনেকেই। যে নেতাকর্মীরা তৃণমূল ছেড়ে বিজেপি-র দিকে চলে গিয়েছেন, তাঁদের সম্পর্কে পার্থ বলেন, ‘‘দু’চার জন সব দলে থাকে, যারা সুযোগ-সুবিধা নিয়ে চলে যায়।’’ 

মঞ্চে পার্থর পাশেই ছিলেন কৃষ্ণগঞ্জের নিহত বিধায়ক সত্যজিৎ বিশ্বাসের স্ত্রী রূপালী। তাঁকে প্রার্থী করা প্রসঙ্গে পার্থ বলেন, “সত্যজিৎকে  খুন করে তৃণমূলকে শেষ করা যাবে না। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নির্দেশে তার পঁচিশ বছরের স্ত্রীকে প্রার্থী করা হয়েছে। চ্যালেঞ্জটা সে নিয়েছে। দেড় বছরের চেলেকে সঙ্গে নিয়ে মানুষের আশীর্বাদ চাইছে।” রূপালী বলেন, ‘‘আমিও আমার স্বামীর মতো মানুষের কাছে থাকতে চাই। মানুষের জন্য কাজ করতে চাই। কাজের মধ্যে দিয়ে স্বামীকে বাঁচিয়ে রাখতে চাই।’’

২০১৯ লোকসভা নির্বাচনের ফল

আপনার মত