বৈদ্যুতিন ব্যবস্থা বা ই-প্রথার মাধ্যমে সরকারের ঘরে যে-কোনও ধরনের রাজস্ব বা ফি জমা নেওয়া চালু নেওয়ার বন্দোবস্ত হয়েছে। কিন্তু তার পরেও বেশ কিছু দফতর এখনও পুরনো প্রথায় কাউন্টারে নগদে টাকা জমা নিচ্ছে। নবান্ন এ বার নগদের কারবার পুরোপুরি বন্ধ করতে চলেছে।

সরকারের ঘরে টাকা জমা দিতে হলে ‘গভর্নমেন্ট রিসিপ্ট পোর্টাল সিস্টেমস’ বা গ্রিপসের মাধ্যমেই টাকা জমা দেওয়া বাধ্যতামূলক করা হচ্ছে। অর্থ দফতরের কর্তারা জানাচ্ছেন, অনলাইনে ২২টি ব্যাঙ্কের মাধ্যমে গ্রিপসে টাকা জমা দেওয়া যায়। স্টেট ব্যাঙ্কের ই-পে বা ২২টি ব্যাঙ্কের ডেবিট কার্ড, ক্রেডিট কার্ড, নেট ব্যাঙ্কিং, ইউপিআইয়ের মাধ্যমে টাকা জমা দেওয়ার ব্যবস্থা করা হয়েছে। যদি কেউ অনলাইনে টাকা জমা দিতে না-পারেন, তা হলে কোনও ব্যাঙ্কের ওভার দ্য কাউন্টারের মাধ্যমে গ্রিপসে টাকা জমা দেওয়ার ব্যবস্থা রয়েছে। সব দিক থেকেই সরকার সমস্ত টাকা সরাসরি পোর্টালের মাধ্যমে নিতে চায় বলে জানাচ্ছেন অর্থকর্তারা। দফতরগুলির মধ্যে ৯০ ভাগ ক্ষেত্রে সরাসরি গ্রিপসে টাকা জমা পড়লেও ভূমি, স্বরাষ্ট্র, পরিবহণ, স্বাস্থ্য, পূর্ত দফতর বহু ক্ষেত্রে নগদে কারবার চালাচ্ছে। সেগুলো এ বার বন্ধ হতে চলেছে বলে অর্থকর্তাদের দাবি।