• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

পশ্চিমী ঝঞ্ঝার প্রভাবে তুষারপাত সান্দাকফুতে, আরও নামল পারদ

Sandakphu

উত্তর পশ্চিম ভারতে পশ্চিমী ঝঞ্ঝা হাজির হতেই হালকা তুষারপাত হল দার্জিলিংয়ের সান্দাকফুতে। শুক্রবার ভোরে মিহি কুচির মতো বরফে ছেয়ে যায় সান্দাকফুর বিস্তীর্ণ এলাকা। লাগোয়া ফালুটেও হালকা বরফ পড়েছে। কেন্দ্রীয় আবহাওয়া মন্ত্রকের গ্যাংটক শাখা সূত্রের খবর,  পাশের রাজ্য সিকিমের লাচুং, লাচেন, নাথুলাতেও ভারী তুষারপাত হয়েছে।  দার্জিলিঙের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ৩ ডিগ্রি সেলসিয়াসে নেমে যায়। 

প্রভাব পড়েছে সমতলেও। শিলিগুড়িতে দিনের বেলায় সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ২৫ ডিগ্রি সেলসিয়াসের কাছেপিঠে ঘোরাফেরা করেছে। শুক্রবার ভোরে শিলিগুড়ির সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ১২ ডিগ্রি সেলসিয়াস। উত্তরবঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়ের ভূগোল বিভাগের শিক্ষক রঞ্জন রায় জানান, পশ্চিমী ঝঞ্ঝা এখন উত্তর পশ্চিম ভারতে সক্রিয় হয়েছে। তিনি বলেন, ‘‘এর প্রভাবে সান্দাকফুতে হালকা তুষারপাত হয়েছে।’’ তিনি জানান, উপগ্রহ চিত্র দেখে অনুমান, দু’দিনের মধ্যে আরও একটি নতুন ঝঞ্ঝা হাজির হতে পারে উত্তর-পশ্চিম দিক থেকে। তা হলে আরও জাঁকিয়ে ঠাণ্ডা পড়বে বলে পূর্বাভাস রয়েছে।

সান্দাকফুতে তুষারপাতের খবরে পর্যটন ব্যবসায়ীরা ডিসেম্বরে বাড়তি ভিড়ের আশা করছেন। হিমালয়ান হসপিটালিটি অ্যান্ড ট্যুরিজম ডেভেলপমেন্ট নেটওয়ার্কের সাধারণ সম্পাদক সম্রাট সান্যাল বলেন, ‘‘সান্দাকফুতে সামান্য বরফ পড়ার খবর পেতেই অনেকে যোগাযোগ করছেন। ভারী তুষারপাতেরও হালকা সম্ভাবনাও রয়েছে। সে জন্যই অনেকে সান্দাকফু যেতে আগ্রহ দেখাচ্ছেন।’’

 

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন