বড় কোনও অনুষ্ঠান ছাড়াই শুরু হল রাজ্যের প্রয়াত প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী সিদ্ধার্থশঙ্কর রায়ের জন্ম-শতবর্ষ পালন। বিধানসভায় রবিবার সিদ্ধার্থবাবুর শততম জন্মদিন পালনের অনুষ্ঠানে ছিলেন না সরকার বা শাসক দলের কোনও প্রতিনিধি। স্পিকার বিমান বন্দ্যোপাধ্যায় অবশ্য জানিয়েছেন, বিধানসভার প্রথা মতোই অনুষ্ঠানের জন্য সকলকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছিল। স্পিকারের পাশাপাশি বিরোধী দলনেতা আব্দুল মান্নান, কংগ্রেসের সচেতক মনোজ চক্রবর্তী, বিধায়ক অসিত মিত্র ও সিদ্ধার্থবাবুর পরিবারের লোকজন অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

মৃত্যুর আগে তৃণমূলের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ সম্পর্কই ছিল সিদ্ধার্থবাবুর। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এ দিন টুইট করেন, ‘বাংলার প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী সিদ্ধার্থশঙ্কর রায়ের (মানুদা) জন্মদিবসে প্রণাম জানাই’। বিধানসভার লবিতে জন্মদিনের অনুষ্ঠানে তৃণমূল বা বামফ্রন্টের কেউ না থাকলেও যুব কংগ্রেসের সাধারণ সম্পাদক শেখ হবিবুর রহমান (রাজা) ও বড়বাজার যুব কংগ্রেস সভাপতি পঙ্কজ সোনকর সেখানে ছিলেন। স্পিকার জানিয়েছেন, জন্ম-শতবর্ষ উপলক্ষে বিধানসভার শীতকালীন অধিবেশনে সিদ্ধার্থবাবুকে নিয়ে বিশেষ আলোচনার কথা ভাবা হয়েছে। প্রদেশ কংগ্রেস দফতর বিধান ভবনে এ দিন সিদ্ধার্থ-স্মরণে ছিলেন প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি সোমেন মিত্র, প্রদীপ ভট্টাচার্য, দেবপ্রসাস রায়-সহ অন্য নেতারা।