দরজায় কড়া নাড়ছে পুজো। ঢাকে কাঠি পড়ে গিয়েছে। মহালয়ার আগে শেষ শনিবার পুজোর বাজারে স্বাভাবিক ভাবেই ভিড় হওয়ার কথা। কিন্তু বাধ সাধল ‘ভিলেন’ বৃষ্টি। বিক্রিবাটায় ঘাটতি শুধু নয়, রাজ্য জুড়ে বিক্ষিপ্ত বৃষ্টি চিন্তায় ফেলছে প্রতিমা শিল্পী, মণ্ডপ কারিগরদেরও।

এদিন সকাল থেকেই গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গে আকাশ ছিল মেঘলা। বেলা বাড়তেই বৃষ্টি নামে গোটা শহরেই। এক ঘন্টার বেশি সময় বৃষ্টি হয় নদিয়া, ঝাড়গ্রাম, দুই মেদিনীপুর, হাওড়া, উত্তর ও দক্ষিণ চব্বিশ পরগণায়। আবহবিদরা অবশ্য আশ্বস্ত করে বলছেন, এই বৃষ্টি নিম্নচাপ নয়। স্থানীয় ভাবে মেঘ সঞ্চার হওয়ার ফলেই এই বৃষ্টি।

তবে আশঙ্কাও আছে। পুজো যত এগিয়ে আসবে নিম্নচাপ তৈরির সম্ভাবনা তত বাড়বে বলেই জানাচ্ছেন তাঁরা। হাওয়া অফিস জানিয়েছে, ২৪ সেপ্টেম্বরের পর থেকেই দুই চব্বিশ পরগণা, হাওড়া, হুগলি-সহ গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গে ভারী বৃষ্টি হবে।

আরও পড়ুন: শিক্ষক-পড়ুয়াদের সঙ্গে কথা বলতে চাই, উপাচার্যকে দেখতে গিয়ে বললেন রাজ্যপাল
আরও পড়ুন: ‘সাংসদ-বিধায়করাই নন, মোটা টাকা মাসোহারা দিতে হত পুলিশকেও’, সুদীপ্তের বয়ানই হাতিয়ার সিবিআইয়ের

পুজোর মুখে অনবরত বৃষ্টি হওয়ায় প্রতিমা তৈরির কাজ ব্যাহত হচ্ছে কুমোরটুলিতে। কলকাতা জুড়ে এখন থিমের মণ্ডপে শেষ মুহূর্তের প্রস্তুতি চলছে। অনেক মণ্ডপ প্রায় শেষের দিকে। এই বৃষ্টিতে বারবার ব্যহত হচ্ছে সেই কাজ। অন্য দিকে, এমনিতেই বাজারে প্রতিবারের তুলনায় লেনদেন কম। তার মধ্যে পুজোর মুখেই বৃ্ষ্টি অনেকটাই মাটি করছে শনিবারের বাজার।