• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

পাহাড়ে যেতেই হুমকি

Darjeeling
—ফাইল চিত্র।

যাওয়ার কথা ছিল বিদেশে। কিন্তু লকডাউনে আটকে পড়েছিলেন কলকাতায়। আনলক-১ শুরুর পরে জিটিএ সিদ্ধান্ত নেয়, পাহাড়ের হোটেল খুলে দেওয়া হবে। সেটা জানার পরেই পরিবারের কয়েক জনকে নিয়ে বৃহস্পতিবার গাড়ি করে দার্জিলিং পৌঁছে যান কলকাতার দেবাশিস রায়চৌধুরী। কিন্তু দার্জিলিঙে তাঁদের হোটেল বয়ে এসে বারবার হুমকি দেওয়া হয় বলে অভিযোগ। ফলে এক রাতের বেশি থাকা সম্ভব হয়নি। যা শুনে চিন্তায় হোটেল মালিকরা। তাঁদের প্রশ্ন, তা হলে ব্যবসা চালু হবে কী করে?

পাহাড়ের মতো সমুদ্রেও একই ধরনের ঘটনা। স্থানীয়দের বাধায় হোটেলে থাকতে না পেরে দিঘা থেকে একদিন আগেই, শুক্রবার ফিরতে হল বেহালা সরশুনার কয়েক জনকে। 

দার্জিলিং সফর সম্পর্কে দেবাশিসবাবু শুক্রবার জানান, পাহাড়ে ওঠার মুখে রোহিণীতে সমস্ত ধরনের চেকিং, স্ক্রিনিং, ছবি তোলা হয়। কোনও সমস্যা হবে না বলেও জানানো হয়। বিকেল ৪টে নাগাদ হোটেলের সামনে গাড়ি পার্ক করার সময় এক দল ছেলে নানা কথা জিজ্ঞাসা শুরু করে। পরে রাতে আরেক দল হোটেলে এসে চেঁচামেচি করে। দেবাশিসবাবু বলেন, ‘‘সকাল হওয়া মাত্র আরেক দল এসে হাজির। তাঁদের দাবি, এখনই হোটেল ছাড়তে হবে। পাঁচ মাসের শিশুটিকে তৈরি করার কথা বলেও রেহাই মেলেনি। আর দেরি করিনি। গাড়ি নিয়ে নেমে চলে আসি মূর্তিতে।’’ পর্যটনমন্ত্রী গৌতম দেব বলেন, ‘‘বিষয়টি শুনেছি। এটা দুর্ভাগ্যজনক।’’ 

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন