স্বামীর মৃতদেহের আবার ময়নাতদন্তের দাবিতে উত্তর দিনাজপুরের জেলাশাসকের দ্বারস্থ হলেন রহস্যজনক ভাবে মৃত প্রিসাইডিং অফিসার রাজকুমার রায়ের স্ত্রী অর্পিতা বর্মন (রায়)। তাঁর দাবি, তাঁর স্বামীর যে ময়নাতদন্ত হয়েছে, তার ভিডিয়ো রেকর্ড করা হয়নি। কোনও ম্যাজিস্ট্রেটও সেখানে উপস্থিত ছিলেন না ।

পঞ্চায়েত ভোটের দিন ইটাহারের একটি বুথ থেকে নিখোঁজ হয়ে যান প্রিসাইডিং অফিসার রাজকুমারবাবু। পরের দিন রেললাইনের ধার থেকে তাঁর ছিন্নভিন্ন দেহ উদ্ধার হয়। প্রশাসন দাবি করেছিল, রাজকুমারবাবু আত্মহত্যা করেছেন। কিন্তু পরিবারের দাবি, তাঁকে অপহরণ করে খুন করা হয়েছে। সেই ঘটনায় সিবিআই তদন্ত শুরু করেছে। রাজকুমারবাবুর দেহের ময়নাতদন্ত করেছে রেলপুলিশ। তাঁদেরও দাবি, ট্রেন দুর্ঘটনাতেই রাজকুমারবাবুর মৃত্যু হয়েছে। রাজকুমারবাবুর পরিবারের দাবি, রেল যে ময়না-তদন্ত করেছে, তার রিপোর্টও তাঁরা পাননি। ফের ময়নাতদন্তের প্রসঙ্গে জেলাশাসক আয়েশা রানির বক্তব্য, ‘‘রাজকুমারবাবুর স্ত্রীর দাবি সিআইডির কাছে পাঠিয়ে দেওয়ার প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে।’’